• মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৬
  • ||

মালদ্বীপকে ৬ রানে গুঁড়িয়ে দিলো বাংলার বাঘিনীরা

প্রকাশ:  ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:৩৭ | আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:২৭
স্পোর্টস ডেস্ক

মালদ্বীপের মেয়েরা আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দক্ষিণ এশিয়ান গেমস (এসএ) দিয়েই অভিযান শুরু করেছে। অন্যদিকে বাংলাদেশের মেয়েরা নিয়মিত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলা দল। দুই দলের শক্তির পার্থক্যটা তাই দিনের আলোর মতোই পরিষ্কার। পোখারায় আজ তা আরও প্রকটভাবেই বুঝল মালদ্বীপের মেয়েরা। তাদেরকে মাত্র ৬ রানে গুড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ২৫৫ রান তোলে বাংলাদেশ। এরফলে ২৪৯ রানের বিশাল জয় পায় বাংলার বাঘিনীরা।

নেপালের পোখারায় রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার (০৫ ডিসেম্বর) ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ২৫৫ রানের বিশাল পাহাড় গড়ে বাংলাদেশের মেয়েরা। শুরুতেই ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশের নিগার সুলতানা ও ফারজানা হক দেখা পেয়েছেন প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরির। পরে মালদ্বীপ ১২.১ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে তোলে মাত্র ৬ রান। গতকাল ছেলেদের ক্রিকেটে এই মালদ্বীপের বিপক্ষেই ১৭৪ রান তুলেছিলেন সৌম্য সরকার-নাজমুল হোসেনরা। ১০৯ রানে জিতেছিল ছেলেরা।

শুরুতে শ্রীলঙ্কা আর দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালকে গুঁড়িয়ে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশের নারী দলের জন্য মালদ্বীপের বিপক্ষে ম্যাচটি নিয়মরক্ষার ম্যাচে পরিণত হয়। আর তাতে ফাইনালের আগে ব্যাটিং-বোলিয়ের প্রস্তুতিটাও ভালোই হয়েছে। স্বর্ণপদক এখন সালমা খাতুনদের নাগালের মধ্যেই বলা যায়।

টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে ১৯ রানেই দুই ওপেনার শামীমা সুলতানা ও সানজিদা ইসলামের উইকেট হারায় বাংলাদেশ নারী দল। কিন্তু এরপর মালদ্বীপের বোলারদের ওপর স্টিম রোলার চালিয়েছেন নিগার ও ফারজানা।

মাত্র ৩৫ বলে ফিফটি হাঁকানো নিগার সুলতানা প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি তুলে নেন ৫৯ বলে। আর ফারজানার প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি আসে ৪৯ বলে। দুজনে মিলে শেষদিকে রীতিমত ঝড় তুলেছেন। এর মধ্যে শেষ পাঁচ ওভারে এসেছে ৮০ রান। আর ১৫তম ওভারে এসেছে ২৪ রান। দুজনের জুটিতে এসেছে অবিচ্ছিন্ন ২৩৬ রান।

শেষ পর্যন্ত ১১৩ রানে অপরাজিত থাকা নিগার সুলতানার ৬৫ বলের ইনিংসটি ১৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় সাজানো। আর ৫৩ বলে ১১০ রানে অপরাজিত থাকা ফারজানার ইনিংসটি সাজানো ২০টি চারে। মালদ্বীপের হয়ে একমাত্র উইকেটটি নিয়েছেন শাম্মা আলী।

ব্যাটিংয়ে নেমে মালদ্বীপের ৮ ব্যাটারই ফেরেন ০ রানে। রিতু মনি ৪ ওভারে তিন মেডেন নিয়ে মাত্র ১ রান দিয়ে তুলে নেন তিনটি উইকেট। সালমা খাতুন ৩.১ ওভারে ২ রানে তিনটি উইকেট পান। সর্বোচ্চ ২ রান করেন শাম্মা আলী। একটি করে উইকেট তুলে নেন রাবেয়া আর নাহিদা ।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট,দক্ষিণ এশিয়ান গেমস,বাংলার বাঘিনীরা,মালদ্বীপ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত