Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

মেসিকে চায় বাংলাদেশ, আর্জেন্টিনার প্রধান শর্ত নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা

প্রকাশ:  ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১১:০৫
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

ক্রীড়াঙ্গনে মেসিদের ঢাকা সফরের খবরটি এখন সবচেয়ে আলোচিত বিষয়। আগামী মাসে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলার খবর নিশ্চিত করেছে প্যারাগুয়ে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। নভেম্বরে ঢাকায় দুটি প্রতি ম্যাচ খেলবে প্যারাগুয়ে।

সোমবার প্যারাগুয়ের ফুটবলের টুইটার পেজে জানানো হয়েছে, আগামী ১৫ নভেম্বর ভেনিজুয়েলা ও ১৮ নভেম্বর আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ঢাকায় দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে তারা। ভেনিজুয়েলা ফুটবল ফেডারেশন ও প্যারুগুয়ের বিপক্ষে তাদের প্রীতি ম্যাচটি ঢাকায় হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে।

আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অবশ্য এ বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি। তবে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ‘মন্ডো আলবিসেলেস্তে’ জানিয়েছে, ১৮ নভেম্বর ঢাকায় প্রীতি ম্যাচ খেলবে দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এ ম্যাচে আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসির খেলার জোর সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) অবশ্য ঢাকায় ম্যাচ দু’টি আয়োজনের বিষয়টি এখনও শতভাগ চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছে। একই সঙ্গে জোর সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছে বাফুফে।

এ ধরনের ম্যাচ আয়োজন মানেই নানা দেন-দরবার। অংশগ্রহণকারী দল, এজেন্ট এবং আয়োজক দেশের মধ্যে এ আলোচনা হয়ে থাকে দফায় দফায়। হচ্ছে বাংলাদেশেও। আগামী দুই একদিনের মধ্যেই এজেন্টের সঙ্গে আরেক দফা আলোচনায় বসবে বাফুফে। এ আলোচনার জন্য ঢাকায় আসতে পারেন এজেন্ট প্রতিষ্ঠানের ভারতীয় প্রতিনিধিরাও।

এ ম্যাচ নিয়ে তিন পক্ষেরই আছে বেশ কিছু শর্ত। এর মধ্যে বাংলাদেশের প্রধান শর্ত দলে মেসির নিশ্চয়তা। আর আর্জেন্টিনার প্রধান শর্ত নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার বিষয়টি। বাফুফেই নয়, সরকারের পক্ষ থেকে এ ম্যাচের অনুমতি দেয়ার সময়ও ‘মেসি থাকতে হবে’- এমন শর্ত দেয়া হয়েছে।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেন, যে প্রতিষ্ঠান ঢাকায় এই ম্যাচ আয়োজন করবে তারা আমাদের কাছে অনুমতি ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তার বিষয়ে একটি চিঠি চেয়েছিল। আমরা দিয়েছি। সেখানে বলেছি, আর্জেন্টিনা দলে মেসি থাকতে হবে। আসতে হবে আর্জেন্টিনার পূর্ণাঙ্গ দল। কারণ, অপূর্ণাঙ্গ আর্জেন্টিনা দল আনার মানেই হয় না।

২০১১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকায় আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়ার ম্যাচ আয়োজনে খরচ হয়েছিল ৩০ কোটি টাকার বেশি। আট বছর পর আর্জেন্টিাকে আবার আনতে খরচটা আরো বড় হবে সেটাই স্বাভাবিক। বাফুফের একটি সূত্র মতে এবার খরচ চলে যাবে চল্লিশ কোটির ওপরে।

এ টাকার উৎস খুঁজবে এজেন্ট। তবে তাদের পৃষ্ঠপোষক খুঁজে দেয়ার বড় একটা দায় থাকবে বাফুফেরও। এটাও একটা শর্ত। বাফুফে সাধারণ সম্পাদক এ জন্যই এখনো ম্যাচটির বিষয়ে শতভাগ নিশ্চয়তা না দিয়ে বলছেন ফিফটি-ফিফটি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

লিওনেল মেসি,আর্জেন্টিনা,বাংলাদেশ,ফুটবল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত