• রোববার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

ক্লাব পাড়ায় ক্যাসিনো বাণিজ্যে জড়িতদের কঠোর শাস্তি চান ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ:  ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:২২
নিজস্ব প্রতিবেদক

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, স্পোর্টস ক্লাবগুলোর প্রধান কাজ হলো খেলাধুলায় সক্রিয় থাকা। কিন্তু স্পোর্টসের নাম ভাঙিয়ে ক্লাবগুলোতে অবৈধভাবে জুয়া ও ক্যাসিনো বাণিজ্য হয়েছে। এর চেয়ে ন্যাক্কারজনক ও জঘন্য কাজ আর হতে পারে না।

রাগবি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকে দেশে ফিরে ক্যাসিনোর বিষয়ে গণমাধ্যমের কাছে এ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন তিনি।

জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, এই অবৈধ কাজের সঙ্গে যারাই জড়িত, তাদের কঠোর শাস্তি হওয়া উচিত। অপরাধী কাউকে যেন ছাড় দেওয়া না হয়। সে যেই হোক।

তিনি বলেন, সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে এসব অবৈধ কার্যকলাপের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেয়া হচ্ছে। আমি চাই যারা খেলাধুলার জায়গা ক্লাব পাড়ায় এই অবৈধ ক্যাসিনো বাণিজ্য করেছে তাদের যথাযথ বিচার হোক।

ক্লাবগুলো থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে তাদের ইচ্ছের বিরুদ্ধেই একটি গোষ্ঠি ক্যাসিনো পরিচালনা করতো। এ প্রসঙ্গে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, তার জবাব ক্লাবগুলো দেবে। তবে জোর করে ক্যাসিনো চালানোর বিরুদ্ধে ক্লাবগুলো কেন আইনের আশ্রয় নেয়নি? কেন তারা থানায় মামলা বা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেনি। ক্লাবের মধ্যে অবৈধ ক্যাসিনো আর জুয়ার কারণে ক্রীড়াঙ্গনের সুনাম মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমার একটাই কথা- এই অবৈধ কার্যকলাপের সঙ্গে যেই জড়িত থাকা কাউকে যেন ছাড় দেওয়া না হয়। তাদের চিহ্নিত করে যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হয়।যারা এ কাজ করেছে, তারা যেই হোক তা বিবেচ্য নয়। যত বড় নেতা, প্রশাসনের ব্যক্তি কিংবা ক্লাব কর্মকর্তা হোক তাদের কঠিন শাস্তি দিতে হবে।যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের অপকর্ম করার সাহস কেউ না পায়।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী,জাহিদ আহসান রাসেল,এমপি,স্পোর্টস ক্লাব
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত