Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড ভাঙ্গলো পুঁচকে থাইল্যান্ড!

প্রকাশ:  ১২ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৩৯
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

ক্রিকেট খেলে থাইল্যান্ড। এটাই তো বড় খবর! তবে আরও বড় খবর আছে। থাইরা শুধু ক্রিকেট খেলেইনা, তাদের নারী জাতীয় ক্রিকেট দল বড় এক কীর্তিই গড়ে বসেছে। মেয়েদের টি-টোয়েন্টিতে টানা ১৭ ম্যাচ জিতে অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে দলটি। এর আগে টানা ১৬ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড ছিল অস্ট্রেলিয়ার।

শুধু মেয়েদের ক্রিকেট কেন, ছেলে-মেয়ে সবার ক্রিকেট মিলিয়েও এটি রেকর্ড। ছেলেদের টি-টোয়েন্টিতে টানা সবচেয়ে বেশি জয়ের রেকর্ড আফগানিস্তানের, ২০১৬ সালের মার্চ থেকে পরের বছরের মার্চ পর্যন্ত টানা ১১টি টি-টোয়েন্টিতে জিতেছিল আফগানরা।

থাইল্যান্ডের মেয়েরা রেকর্ডটি গড়েছে কাল, নেদারল্যান্ডসে চলমান সিরিজে স্বাগতিকদের হারিয়ে। প্রথমে ব্যাট করে ১৭.৫ ওভারে ৫৪ রানে অলআউট হয়ে যায় নেদারল্যান্ডস। জবাবে ৭২ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটে জয় তুলে নেয় থাইরা। ব্যস, এতেই রেকর্ডের পাতায় টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদের হটিয়ে উঠেছে থাইল্যান্ডের নাম।

থাইদের এই জয় যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১৮ সালে নেদারল্যান্ডসেই। আরব আমিরাতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ১৭ জয়ের মালা গাঁথা শুরু করেছিল তারা। রেকর্ড গড়ার পথে সর্বোচ্চ তিনবার হারিয়েছে এই আরব আমিরাতকেই। শেষ দুই ম্যাচে তুলনামূলক বড় দলের বিপক্ষে পেয়েছে জয়ের স্বাদ। কাল নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে জয়ের আগের ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়েছে ৭৪ রানে। বর্তমানে টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে ১২ নম্বরে আছে দলটি।

থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া ছাড়া মেয়েদের টি-টোয়েন্টিতে টানা ১০ বা তার বেশি ম্যাচ জয়ের কীর্তি আছে আরও তিনটি দেশের। টানা ১৪ জয় আছে ইংল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের। নিউজিল্যান্ডের রেকর্ডটা টানা ১২ জয়ের। সবাইকে ছাপিয়ে গেল সহযোগী দেশ থাইল্যান্ড। যাদের কিনা বিশ্ব ক্রিকেটে তেমন নাম ডাকই নেই। তবে মাঝে মাঝে কিছু চমক যে দেখায়নি তাঁরা, এমন নয়। গত বছর মেয়েদের টি-টোয়েন্টি এশিয়া কাপে একটি অঘটনের সাক্ষী হতে দেখেছিল ক্রিকেট বিশ্ব। শ্রীলঙ্কাকে ৪ উইকেটে হারিয়েছিল থাইল্যান্ড।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএ

থাইল্যান্ড নারী ক্রিকেট দল
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত