• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

ধ্বংসস্তুপে দাঁড়িয়ে দিমুথ করুনারত্নের হাফ সেঞ্চুরি

প্রকাশ:  ০১ জুন ২০১৯, ১৮:৫৬
স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপের শুরুতে আরও একটি লো-স্কোরিং ম্যাচ দেখল ক্রিকেটবিশ্ব। শুক্রবার (৩১ মে) পাকিস্তান ১০৫ রানে অল-আউট হওয়ার পর শনিবার (০১ জুন) এশিয়ার আরেক দেশ শ্রীলঙ্কা অলআউট হয়েছে মাত্র ১৩৬ রানে। তবে এই ধসের মাঝেও একমাত্র হাফ সেঞ্চুরি করেছেন অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে।

এদিন বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় ইংল্যান্ডের কার্ডিফে টস জিতে ১৯৯৬ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

ম্যাচটি শুরু হয় বিকেল সাড়ে ৩টায়। সরাসরি সম্প্রচার করছে স্টার স্পোর্টস ওয়ান, গাজী টিভি, মাছরাঙা টেলিভিশন ও বিটিভি।

টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ম্যাট হেনরিকে ৪ মেরে ইনিংসে শুভ সূচনা করেছিলেন শ্রীলঙ্কান ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে। কিন্তু প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরে যেতে হয় তাকে। প্রযুক্তির কাছে কপাল পুড়েছে লঙ্কান এই ওপেনারের। বোলার হেনরির আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলে রিভিউ নেন উইলিয়ামসন। আর প্রথম রিভিউতেই সফল নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক। দলীয় ৪ রানেই ফিরে যেতে হয় থিরিমান্নে।

ওয়ান ডাউনে কুশল পেরেরা এসে শুরুটা করেছিলেন দারুণ। ওপেনার দিমুথ করুনারত্নের সঙ্গে ভালোই শুরু করেছিলেন। ৪৭ বলে ৪২ রানের জুটি গড়েছিলেন দু’জন। নবম ওভারে পর পর দুই বলে শ্রীলঙ্কাকে আবার ব্যাক ফুটে পাঠিয়ে দিয়েছেন হেনরি। ২৪ বল খেলে ২৯ রান করে ফিরতে হয় তাকে হেনরির বলে। ছক্কা মারতে গিয়ে মিড অন পর্যন্তই পৌঁছাতে পেরেছেন পেরেরা। পরের বলেই কুশল মেন্ডিস স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন গোল্ডেন ডাক নিয়ে।

এরপর ব্যাটিংয়ে নামা ধনঞ্জয় দি সিলভা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুইস ও জীবন মেন্ডিস দলকে হতাশ করে ফিরে গেছেন প্যাভিলিয়নে। সিলভাকে ৪ রানে ও জীবন মেন্ডিসকে ১ রানে ফিরান লকি ফার্গুসন। আর ০ রানে ম্যাথুইসকে আউট করেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। দলীয় স্কোর তখন ৬ উইকেট হারিয়ে ৬০ রান।

সবাই যখন আসা-যাওয়ার পথে ছুটছে তখন একাই লড়াই করেন শ্রীলঙ্কার তরুণ এ অধিনায়ক। ম্যাচে তিনি ৫২ করতে খেলেন ৮৪ বল। এই রান করতে তিনি চারটি চার হাঁকান। তবে নেই কোনও ছক্কার মার।

আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে কিউইরা। অন্যদিকে, লঙ্কানদের অবস্থান নবম। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ১০ বার মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কা-নিউজিল্যান্ড। যার মধ্যে শ্রীলঙ্কা ছয়বার ও নিউজিল্যান্ড চার বার জয় পেয়েছে।

পিপিবিডি/অ-ভি

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত