Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||

ভারতকে কটাক্ষ করে ক্ষোভের মুখে মালালা

প্রকাশ:  ৩১ মে ২০১৯, ২০:২৭
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

আর পাঁচজন সাধারণ পাকিস্তানি নাগরিক হলে বিতর্কের অবকাশ ছিল না৷ তবে নামটা যেহেতু মালালা ইউসুফজাই, স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে ভারতকে নিয়ে তার রসিকতার বিষয়টি নিয়ে৷লন্ডন মলে বিশ্বকাপের ওপেনিং পার্টিতে ৬০ সেকেন্ড চ্যালেঞ্জ রীতিমতো উত্তেজক রূপ নেয়৷ প্রাক্তন ক্রিকেটারদের সঙ্গে অন্য ক্ষেত্রের তারকাদের জুটি বেঁধে বাকিংহাম প্যালেসের সামনের রাস্তায় গলি ক্রিকেট খেলার মধ্যে চমকপ্রদ ছিল মালালার মতো ব্যক্তিত্বের উপস্থিতি৷

৬০ সেকেন্ড চ্যালেঞ্জে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন বলিউড তারকা ফারহার আখতার৷ মালাল প্রতিনিধিত্ব করেন পাকিস্তানের হয়ে৷ দশ দলের মধ্যে পাকিস্তান শেষ করে সাত নম্বরে৷ ভারত তালিকার একেবারে শেষে থাকে৷ মজার এই প্রতিযোগিতার পরে মালালা মজার ছলে বলেন যে, পাকিস্তান, আমরা ঠিক আছি৷ সাত নম্বরে থাকাটা খারাপ নয়৷ কিন্তু ভারত লাস্ট হয়েছে৷ অন্তত আমরা ভারতের মতো লাস্ট হইনি৷

ভারত লাস্ট হয়েছে এই কথাতেই প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ পাকিস্তান ভারতের থেকে এগিয়ে রয়েছে, এই বিষয়টিকেই মালালা প্রকারান্তরে প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছেন৷ এর পিছনে কোনও বিদ্বেষ না থাকলেও মালালার মতো শান্তিতে নোবেলজয়ীর কাছ থেকে এমন মন্তব্য আসা করেননি অনেকেই৷

বিষয়টা এরকম যে, নিজের সন্তান পরীক্ষায় ফার্স্ট না হলেও চলবে, তবে প্রতিবেশীর সন্তানের থেকে যেন এগিয়ে থাকে৷ এটা নিজের সন্তানের পাস করার থেকে প্রতিবেশীর সন্তান ফেল করলে বেশ খুশি হওয়ার মতো ঘটনা নিশ্চিত৷পাকিস্তান বরাবর আইসিসি বা এসিসি ইভেন্ট খলেতে নামে বাড়তি একটা লক্ষ্য নিয়ে৷ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বা এশিয়া চ্যাম্পিয়ন না হলেও চলেব, তবে ভারতকে হারাতে হবে টুর্নামেন্টে৷ ভারতের বিরুদ্ধে জিতলে বাকি সব ম্যাচ হারলেও ক্ষতি নেই৷ মালালার রসিকতায় ভারতকে আলাদা করে উল্লেখ করাটা খানিকটা সেরকমই ইঙ্গতবহ৷ দু’দেশের উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিবেশে শান্তির বাতাবরণ বয়ে আনার জন্য আদর্শ নয় মালালার এমন রসিকতা৷

এমন মন্তব্যের জন্য নেটিজেনরা ইতিমধ্যেই মালালার মুণ্ডপাত শুরু করেছেন৷ মাস্টার কা লড়কা নামক অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করা হয়, আপনি মালালাকে পাকিস্তানের বাইরে রাখতে পারেন৷ পাকিস্তানকে মালালার বাইরে রাখতে পারবেন না৷ কোনও শান্তি নেই, শুধু পুরস্কার৷

সেই টুইটের রেশ ধরে জনৈক নভনীত কৃষ্ণা মালালাকে কটাক্ষ করে লেখেন, ভারত লাস্ট হয়েছে- এই বিষয়টাই পাকিস্তানিদের কাছে বেশি গুরুত্ব পায়৷ আপনার (মালালা) অনুগামীদের জন্য দারুণ বার্তা৷ এভাবেই শান্তি ছড়াচ্ছেন৷

রনিজ নামক টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে মালালার উদ্দেশ্যে লেখা হয়, আপনি এমন একটা দেশের প্রশংসা করছেন, যেখানে আপনি যেতে পারেন না৷ একজন মগজধোলাই করা ট্রিপিক্যাল পাকিস্তানিক মতো আপনি ভারতকে অপমান করছেন, যেখানে চাইলেই আপনি নিরাপদে যেতে পারেন৷ এমন সাদাসিধে মুখ করে বিরক্তিকর মন্তব্য করা বন্ধ করুন৷

/এস কে

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত