Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

স্বার্থের সংঘাত ইস্যুতে শচিনকে মুক্তি দিল বিসিসিআই

প্রকাশ:  ২৯ মে ২০১৯, ০৯:৪৩
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট icon

শচিনের বিরুদ্ধে ওঠা স্বার্থের সংঘাত সংক্রান্ত সব অভিযোগ খারিজ করে দিলেন বোর্ডের ওম্বুডসম্যান ডিকে জৈন। বোর্ডের এথিক্স অফিসার জানিয়ে দেন, শচিনের বিরুদ্ধে ওঠা স্বার্থের সংঘাত অভিযোগ ভিত্তিহীন।

জন্মদিনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে নোটিস পাঠানো হয় শচিন টেন্ডুলকারকে। বিসিসিআই-এর এথিক্স অফিসার ডিকে জৈন স্বার্থের সংঘাতের জন্য নোটিস পাঠান মাস্টার ব্লাস্টারের কাছে। মাস্টার ব্লাস্টার ক্রিকেট অ্যাডভাইসরি কমিটির সদস্য। একইসঙ্গে আইপিএলে মুম্বাইয়ের মেন্টর হিসাবে কাজ করেন। যথা সময়ে উত্তরও দেন শচিন। পাশাপাশি স্বার্থের সংঘাত ইস্যুতে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে কার্যত একহাত নেন মাস্টার ব্লাস্টার। ২০১৫ সালে বোর্ডের অ্যাডভাইসরি কমিটির সদস্য হিসেবে শচিনকে নিয়োগ করা হয়। কিন্তু ২০১৩ সাল থেকে আইপিএলে মুম্বাই ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর হিসেবে রয়েছেন শচিন টেন্ডুলকার। এরপরই বোর্ডের ওম্বুডসম্যান ডিকে জৈন নোটিস পাঠান শচিনকে। এমনকী ১৪টি পয়েন্টে শচিন সেই নোটিসের উত্তরও দেন। এরপর শচিন এই গোটা ঘটনার জন্যই বোর্ডকে কাঠগড়ায় তোলেন। ডিকে জৈনকে চিঠির উত্তরে মাস্টার ব্লাস্টার ক্রিকেট অ্যাডভাইজারি কমিটির সদস্য হিসেবে শচিন-সৌরভ এবং লক্ষ্মণদের অবস্থান কী সেটা কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (COA)প্রধান বিনোদ রাই এবং বোর্ড সিইও রাহুল জোহরির স্পষ্ট করা উচিত ছিল বলে জানান।

এমনকী শচিন এও জানান যে মুম্বাই ফ্র্যাঞ্চাইজির থেকে এক পয়সাও নেন না তিনি। নোটিসের জবাব দেওয়ার পরেও নিয়ম মেনে শচিন ডিকে জৈনের সঙ্গে দেখা করেন। সঙ্গে নিয়ে যান তার আইনজীবীকেও। তারপরেই সোমবার এক বিবৃতি দিয়ে জৈন জানিয়ে দেন যে, শচিনের বিরুদ্ধে ওঠা স্বার্থের সংঘাত অভিযোগ ভিত্তিহীন।

/এস কে

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত