• শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

বাংলাদেশকে ৯৫ রানে হারাল ভারত

প্রকাশ:  ২৯ মে ২০১৯, ০০:১০
স্পোর্টস ডেস্ক

ব্যাটে-বলে দারুণ শুরুর পরও ধারাবাহিকতার অভাবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের কাছে ৯৫ রানে হারল বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৯০ রান করেন মুশফিকুর রহিম। এছাড়া ৭৩ রান করেন লিটন দাস।

মঙ্গলবার (২৮ মে) ইংল্যান্ডের কার্ডিফের এই প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে লোকেশ রাহুল ও মহেন্দ্র সিং ধোনির দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ভর করে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৫৯ রান সংগ্রহ করে ভারত।

বল হাতে বাংলাদেশের পেসার রুবেল হোসেন ৮ ওভারে ৬২ রান খরচে নেন ২ উইকেট। সমান ২ উইকেট নিয়েছেন স্পিনার সাকিবও। তবে ৬ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৫৮ রান খরচ করেছেন তিনি। মোস্তাফিজুর রহমান ৮ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে নিয়েছেন ১ উইকেট। ১ উইকেট নিয়েছেন পার্ট-টাইম স্পিনার সাব্বির হোসেনও। অধিনায়ক মাশরাফি ৬ ওভারে ২৩ রান খরচে উইকেট শূন্য ছিলেন। ৬ ওভার বল করে ২৭ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

৩৬০ রানের পাহাড়সম টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে বাংলাদেশ।উদ্বোধনীতে ৪৯ রান করার পর দুই বলের ব্যবধানে নেই সৌম্য সরকার ও সাকিব আল হাসান। ২৯ বলে ২৫ রান করেন সৌম্য। কিছু বুঝে ওঠার আগেই যজশপ্রীতি বুমরাহর বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন সাকিব।

৪৯ রানে ২ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়া বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় উইকেটে তারা ১১০ রানের জুটি গড়েন। এই জুটিতে জোড়া ফিফটি গড়েন লিটন ও মুশফিক।

ওপেনিংয়ে নেমে শুরু থেকেই অসাধারণ ব্যাটিং করেন লিটন। ফিফটির পর সেঞ্চুরির পথেই ছিলেন এ ওপেনার। কিন্তু যুজবেন্দ্র চাহালের লেগ স্পিনে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন লিটন। তার আগে ৯০ বলে ১০টি চারের সাহায্যে ৭৩ রান করেন।

লিটন আউট হওয়ার পর উইকেটের পরিস্থিতি বুঝে ওঠার আগেই বিপদে পড়েন মোহাম্মদ মিঠুন। ঠিক পরের বলেই এলবিডব্লিউ হন এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। যুজবেন্দ্র চাহালের কারণে রানের খাতা খোলা হয়নি মিঠুনের।

এরপর ছয় নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নেমে সুবিধা করতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কুলদীপ যাদবের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন রিয়াদ।

৫ উইকেটে ২১৬ রান করা বাংলাদেশ এরপর শূন্য রানের ব্যবধানে হারায় ৩ ব্যাটসম্যানকে। দুর্ভাগ্যই বলতে হয়। ইনিংসের শুরু থেকে অসাধারণ ব্যাটিং করেও সেঞ্চুরি মিস করেন মুশফিকুর রহিম। মাত্র ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেন তিনি। কুলদীপ যাদবের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন মুশফিক। সাজঘরে ফেরার আগে ৯৪ বলে ৮টি চার ও দুটি ছক্কায় ৯০ রান করেন মুশফিক।

মুশফিক আউটের পর দ্রুত বিদায় নেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও সাব্বির হোসেন রুম্মন। ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গেয়ে আউট হন সৈকত। রবিন্দ্র জাদেজার বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন সাব্বির।

ইনিংসের শেষ দিকে ২৫ বলে ১৮ রান করে আউট হন সাইফউদ্দিন। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে রান আউট হয়ে মেহেদী হাসান মিরাজের বিদায়ের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ থেমে যায় ২৬৪ রানে।

কুলদীপ ও চাহাল ভারতের পক্ষে তিনটি করে উইকেট নেন। দুটি পান বুমরাহ।

পিপিবিডি/অ-ভি

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত