• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে তৈরি শ্রীলংকার জার্সি

প্রকাশ:  ০৪ মে ২০১৯, ১৬:২৪ | আপডেট : ০৪ মে ২০১৯, ১৬:৩৫
স্পোর্টস ডেস্ক

চার বছর পর আবারও শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) দ্বাদশতম এ আসর বসছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে। ৩০ মে লন্ডনের ওভালে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে ২০১৯ বিশ্বকাপের। ১৪ জুলাই পর্যন্ত চলবে এ বিশ্বকাপ।

আসন্ন বিশ্বকাপকে সামনে রেখে প্রতিটি দলই তাদের নতুন জার্সি তৈরি করছে। এরপর তা মিডিয়ার সামনে প্রকাশও করছে।এখন পর্যন্ত উন্মুক্ত হওয়া জার্সিগুলোর মধ্যে শ্রীলংকার জার্সি আলাদা জায়গা পেয়েছে। যা ক্রিকেট বিশ্বে বেশ প্রশংসাও পেয়েছে।

সম্প্রতি কলম্বোর তাজ সমুদ্র হোটেলে এক জাঁকজমক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শ্রীলংকার বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন করা হয়। এ সময় প্রদর্শন করা হয় দলের অনুশীলন জার্সিও।

সম্প্রতি কলম্বোর তাজ সমুদ্র হোটেলে এক জাঁকজমক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শ্রীলংকার বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন করা হয়। এ সময় প্রদর্শন করা হয় দলের অনুশীলন জার্সিও।

সমুদ্রে ফেলা প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে তৈরি করা এই জার্সি কেড়ে নিয়েছে বিশেষ আকর্ষণ। সমুদ্রকে বাঁচানোর জন্য বিশ্বকাপ জার্সিকে একটি বার্তা হিসেবে ব্যবহৃত করতে চেয়েছে দ্বীপদেশটি। যে জার্সি পরে দল ম্যাচ খেলতে নামবে তাতে রয়েছে প্রচলিত গাঢ় নীল ও হলুদ রঙের মিশ্রণ। এছাড়াও রয়েছে গ্রাফিক্সের কারুকাজ। জার্সির বুকে বড় করে সাদা রঙে লেখা রয়েছে শ্রীলংকা।

অনুশীলনের জার্সিতে নীল ও কালো রঙের মত গাঢ় রঙের আধিক্য। এর বুকে রয়েছে দলের স্পন্সর কেন্ট মিনারেল ওয়াটার পিউরিফায়ারের লোগো।

জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিশ্বকাপে শ্রীলংকা দলের অধিনায়ক দিমুঠ করুনারত্নের হাতে জার্সি তুলে দেন শ্রীলংকান ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ও কর্মকর্তারা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্তাব্যাক্তিরা।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার জার্সি নতুন করে বানানোর বিষয়টি বেশ প্রশংসা পায়। দক্ষিণ আফ্রিকার পরিবর্তিত জার্সিও ভালো সাড়া ফেলে। আর বাংলাদেশের জার্সি নিয়ে তো ক্রিকেটপ্রেমীদের ভিতরে রীতিমত তুলকালাম কাণ্ড ঘটে।

/এস কে

শ্রীলংকা ক্রিকেট,ক্রিকেট বিশ্বকাপ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close