• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

শহীদ শেখ কামালের অনন্য স্মৃতি

প্রকাশ:  ০৫ আগস্ট ২০২২, ১৯:০৪
নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মদিন আজ (শুক্রবার)। ১৯৪৯ সালের এই দিনে তদানীন্তন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বহুমাত্রিক অনন্য সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী শেখ কামাল। জন্মদিনে এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে স্মরণ করছে পুরো জাতি আর তার বন্ধুরা মেলে ধরছেন স্মৃতির ঝাঁপি। তেমনি শেখ কামালের বন্ধু সেলিম জাহান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ করলেন অনন্য এক স্মৃতি।

নিচে সেলিম জাহানের ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হলো-

সম্পর্কিত খবর

    দু’বছর আগে ছবি দু’টো দেখিয়েছিল পরম স্নেহভাজন মাহমুদ - বর্তমানে অবসরে যাওয়া বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদ হাসান। সে বছরেরই প্রথম দিকে একটি অনুষ্ঠানে আমার পাশেই বসেছিল সে। সেখানেই তার মুঠোফোনে ছবি দু’টো দেখলাম।

    কার্যোপলক্ষ্যে মাহমুদকে একরাত থাকতে হয়েছিলো টাঙ্গাইল মধুপুরে দোখলা সরকারী অতিথি ভবনে। সে ভবনের সরকারী বইতে নিজের নাম-ঠিকানা লেখা আর স্বাক্ষর দেয়ার কালে নেহাৎ ঔৎসুক্য বশেই সে উল্টে-পাল্টে দেখছিল ঐ ঢাউস বইটি। বিগত বছরগুলোতে তেমন বেশী অতিথি আসেন নি এখানে, কিন্তু তার মধ্যেই বেশ কিছু পরিচিত নাম পেয়ে গেলো সে। পেছনে যেতে যেতে হঠাৎ এক জায়গায় এসে থমকে গেলো মাহমুদ।

    বইটির একটি পৃষ্ঠায় একটি অতি পরিচিত নাম এবং স্বাক্ষর ইংরেজীতে ১৯৭৪ সনের ডিসেম্বরের। অতি পরিচিত সেই মানুষটি অতিথিশালার সেই বইতে জানিয়েছিলো যে, ১৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে ১৭ ডিসেম্বর বিকেল ৪টা পর্যন্ত সে থাকবে সেখানে।

    দ্বিতীয় পৃষ্ঠায় আবারো তার স্বাক্ষর আছে। ১৭ই ডিসেম্বরে খুব সম্ভবত: অতিথিশালা ত্যাগের কালে সে দ্বিতীয়বার স্বাক্ষর করেছিলো। স্বাক্ষরের ওপরে ইংরেজীতে লিপিবদ্ধ করেছে ‘একটি কাপ ভেঙ্গেছি’। তার দোষের দায় স্বীকার করেছে।

    এই সব ঘটনাটির মধ্যমনি সেই মানুষটি ছিল জাতির জনক এবং তৎকালীন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল। কিন্তু এ সব কিছুই সে লেখেনি সেখানে। শুধু তার পরিচয় এই বলে লিপিবদ্ধ করেছে ‘সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’। প্রধানমন্ত্রীর পুত্র হয়েও এটা লিখতে সে ভোলে নি, ‘একটি কাপ ভেঙ্গেছি’। সেটার দায়িত্বও সে নিয়েছে এবং সেটার দামও হয়তো সে দিয়েছে।

    কিন্তু এ সবের কিছুই আমার জানার দরকার নেই। কিছু বলতেও চাই না। কামালের অন্য সব পরিচয় আমার প্রয়োজন নেই। আমি শুধু বড় মায়াময় উচ্চারণে বলি, ‘তুই আমার বন্ধুরে, কামাল। আজ তোর জন্মদিন। বড় মায়ার সঙ্গে স্মরণ করি তোকে।

    পূর্বপশ্চিম- এনই

    পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close