• শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||

‘অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের বিবৃতি তদন্তে প্রভাব ফেলতে পারে’

প্রকাশ:  ২০ আগস্ট ২০২১, ২২:৪৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন

শোক দিবসের ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণকে কেন্দ্র করে বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাসভবনে হামলায় ঘটনায় সংঘর্ষকে ঘিরে সেখানে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে বরিশালের মেয়র সাদিক আবদুল্লাহসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বেশ কয়েকজন গ্রেপ্তারও আছেন। এই পরিস্থিতির মধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে প্রশাসন ক্যাডারদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন (বাসা) মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহকে গ্রেপ্তার দাবি করেছে। এছাড়াও বরিশালের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নিয়েও বিবৃতিতে বক্তব্য এসেছে।

গণমাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর থেকে অনেকেই সংগঠনটির পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতির কড়া সমালোচনা করছেন। বিশেষ করে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হওয়ার পর এমন বক্তব্যে তদন্তে প্রভাব ফেলতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন। কেউ কেউ এমন বিবৃতিকে রাজনৈতিক দলের বিবৃতি বলেও আখ্যা দিয়েছেন।

সম্পর্কিত খবর

    সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দীর্ঘ পোস্টে বিবৃতির প্রসঙ্গ তুলে বলেন, ‘আমি মনে করি, বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের এই বিজ্ঞপ্তিটি তাদের কর্মপরিপন্থী এবং আদর্শ পরিপন্থী হয়েছে। এটি একটি রাজনৈতিক দলের বিবৃতি বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।’

    সংগঠনটির বক্তব্যকে একপেশে দাবি করে তিনি বলেন, ‘তাদের বক্তব্যটি নিরপেক্ষ হয়নি। সাদিক আব্দুল্লাহ্ একজন রাজনীতিবিদ, রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে বড় হয়েছেন। তার সম্পৃক্ততা কতটুকু তা তদন্তসাপেক্ষে বলা যাবে। মামলা হয়েছে, মামলার তদন্ত চলছে, বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের এমন বিবৃতি মামলার তদন্তকে প্রকারন্তরে অস্বীকার করে অশ্রদ্ধার নামান্তর, তদন্ত কর্মকর্তার প্রতি ক্ষমতার চাপ প্রয়োগ বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।’

    সাবেক একাধিক জ্যেষ্ঠ আমলার সঙ্গে নিজের সখ্যের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ঐতিহ্যগতভাবে প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের একটা বিশেষত্ব আছে। বর্তমানে কর্মরত একাধিক উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে, তারাও একমত যে, যেখানে প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দিয়ে বলেছেন যে, অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হবে, সেখানে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে এমন হার্ডলাইনে বক্তব্য প্রদান থেকে বিরত থাকলেও হতো।’

    প্রশাসন ক্যাডারের এমন বক্তব্যে তদন্ত কর্মকর্তা তদন্তের নিরপেক্ষতা হারাবেন বলেও আশঙ্কা এই আইনজীবীর।

    বিবৃতিতে বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কতটা নিরপেক্ষভাবে, দক্ষতার সঙ্গে তার দায়িত্ব পালন করেছেন তা খতিয়ে দেখা দরকার বলেও মনে করেন তিনি।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

    বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন
    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close