• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
  • ||

আমি মরবো না!

প্রকাশ:  ২৬ জুলাই ২০২১, ০২:২৯
জি এম কিবরিয়া

ইস! অমুকে মারা গেছে! অত্যন্ত ভাল মানুষ ছিলেন। ফেসবুকে ইন্না লিল্লাহে- লিখলাম! কতইনা আফসোস করলাম! শুধু একটি বিষয় ভাবনায় আসে না, "আমিও যে কোন মুহুর্তে মরে যেতে পারি!"

শুধু ভাবনায় আসে "এই দুনিয়ার কেউ থাকবে না, আমি ছাড়া!" তাইতো চায়ের দোকানে বসে আড্ডায় করোনা বা সরকারের কঠোর লকডাউনের চৌদ্দ গোষ্ঠী উদ্ধার করি!

সম্পর্কিত খবর

    একটা আলগা ভাব কাজ করে হৃদয়ের গভীর থেকে, "আমি মাস্ক পরি না!" যাও দু-একজন মাস্ক পড়ে, তাকে টিটকারি, টিপ্পনি কাটি "কাপাইড় (ঠুলি) পইরা আর কয়দিন?"

    এভাবে আমাদের এলাকায় গ্রাম গুলোতে ঘরে ঘরে করোনা আক্রান্ত হয়ে গেল! তারা পরিবার সমেত শয্যাশায়ী। তাদের কেউ কেউ কিছুটা ভাল অনুভব করলে, নিজের ঠান্ডা জ্বর হয়েছে বলে আড্ডায় মেতে উঠতে দেখি! এটি যেন স্বাভাবিক ঘটনা! এরই মধ্যে অনেকের মৃত্যু সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে! তবুও সাবধান হচ্ছে না মানুষ! যদিও জ্বরে আক্রান্ত শিশু থেকে বৃদ্ধ। তাদের আছে ঐ একই ভাবনা "আরে না, আমার/আমাদের করোনা হয়নি! হলকা ভাইরাস জ্বর!"

    কেন এমন হলো?

    যেন করোনায় আক্রান্ত হওয়াটা একটি অপরাধ!আক্রান্ত হলে যেন পরিবার বা বংশের মুখ থাকছে না! তাই করোনা লোকাতে সবাই ব্যস্ত!

    কিন্তু সমস্যা হলো, করোনা যে লোকাতে চায় না, সে কেবল বংশ বিস্তার করতে চাই! আর এরূপ অসচেতন মানুষ করোনার জন্য উর্বর ক্ষেত্রই বটে! এসব অবুঝ মানুষ, পরীক্ষার নাম নেয় না! যতক্ষণ না শ্বাস নাকের আগায় না চলে আসে, ততক্ষণ হাসপাতালে যাওয়ার প্রশ্নই উঠে না! শুধু হঠাৎ কেউ মরে গেলে, ইন্না লিল্লাহ বলে! আর ভাবনায় থাকে ঐ একটি কথা,"আমি মরবো না!!" সবাই মরে সাফ হয়ে গেলেও!!!

    দ্রষ্টব্য: সচেতন হোন, আপনি মরে গেলে, সরকারের খাতায় একটি সংখ্যা যোগ হবে! কিন্তু আপনার পরিবারের কি হবে?

    (ফেসবুক থেকে নেওয়া)

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close