• শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬
  • ||

আত্মমর্যাদা নিয়ে প্রতিবাদের বদলে নারীদের কেউ কেউ যেনো খুশি ও বিগলিত হয়েছেন!

প্রকাশ:  ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:১৩ | আপডেট : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৪৮
পীর হাবিবুর রহমান

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধী তাতের শাড়িকে বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় করেছিলেন। শাড়িতে তার ব্যক্তিত্ব উজ্জল হয়ে আসতো। সম্মান কুড়িয়েছেন।

আবহমান কাল জুড়ে বাঙ্গালী নারীর প্রিয় সুন্দর সম্মান ও ব্যক্তিত্বের পোষাক হলো শাড়ি। শাড়ি আমার মা পড়েছেন। শাড়ি আমার পূর্বসুরীরা পড়েছেন। শাড়ি আমার বোনরা পড়েন। শাড়ি আমাদের শিশুকন্যারাও পড়ে। শাড়িতে নারী আমার কাছে অনেক বেশী সম্মান ও শ্রদ্ধার। তবু পোষাক যার যার স্বাধীনতা।

অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ শাড়ি নিয়ে চমৎকার লেখাটিতে কিছু কিছু মন্তব্যে যৌন সুরসুরিতে নারীর দেহের বর্ণনায় পণ্যের শামিল করেছেন। তার জীবনের পড়ন্ত বেলায় ভিতরে বাস করা যৌনবিকৃত পুরুষের চেহারাই উন্মোচন করেছেন। আত্মমর্যাদা নিয়ে নারীরা এর প্রতিবাদটাও করতে পারেননি! কেউ কেউ যেনো খুশি বিগলিত হয়েছেন। আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর সায়ীদ তার মনের কালো দাগটাই দূর করতে পারেননি, তবু তার বই পড়ার আন্দোলন সফল হয়েছে। আশা করি তিনি তার মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইবেন। ক্ষমা চাওয়া মহৎ মানুষের কাজ এটা তিনি অনেকেই শিখিয়েছেন।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)


পূর্বপশ্চিমবিডি/কেএম

নারী,আত্মমর্যাদা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত