• বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে বহন করা ট্রেনটি ১৫ ঘন্টা দেরিতে ছাড়লো

প্রকাশ:  ১১ আগস্ট ২০১৯, ১৯:৪৮ | আপডেট : ১১ আগস্ট ২০১৯, ২০:১২
নিজস্ব প্রতিবেদক

এবারের ঈদুল আজহায় সবচেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন ট্রেনের যাত্রীরা। ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয়ে কোনো কোনো ট্রেন তো ১৫/২০ ঘণ্টা পর্যন্ত দেরিতে ছেড়েছে। পরিস্থিতি ক্রমে খারাপের দিকে যাওয়ায় অগ্রিম টিকিট ফেরত নেয়ার ঘোষণা দেন রেল সচিব। ভয়াবহ এই সিডিউল বিপর্যয়ে ভোগন্তিতে পরেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম নিজেও। ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি জানালেন, তাকে বহনকরা ট্রেনটিও ছেড়েছে ১৫ ঘণ্টা দেরিতে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রোববার সন্ধ্যায় ফেসবুক স্ট্যাটাসে নিজের ভোগান্তির বিষয়টি তুলে ধরেন। নিচে তার স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো।

‘৩০ বছর ধরে ঢাকা-রাজশাহী নিয়মিত যাতায়াত করি। সব ধরনের অভিজ্ঞতাই আছে ঈদের আগের যাত্রা পথে।

পূর্ব ও দক্ষিণ অঞ্চলের যাতায়াতে স্বস্তি এসেছে। উত্তর ও পশ্চিম অঞ্চলের সমস্যা রয়ে গেছে। তবে আশার কথা হচ্ছে যমুনা নদীর উপর রেল সেতু করার জন্য সমিক্ষার কাজ প্রায় সমাপ্ত এবং আমরা জাপানের সাথে আলোচনা প্রায় শেষ করে এনেছি, রেল সেতু নির্মাণের কাজ ইনশাআল্লাহ আগামী বছর শুরু করা যাবে। সেই সাথে রেলের ডাবল লাইন নির্মাণের কাজও শুরু হবে।

রাস্তার জ্যামে এখন সমস্যা হিসেবে সিরাজগঞ্জ অংশ যার প্রভাব সেতু ছাড়িয়ে টাংগাইল পর্যন্ত চলে আসে। চার লেনের কাজের মাঝে ১৪ কিলোমিটার শেষ হলে একটা ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

আমার ট্রেন ১৫ ঘন্টা দেরিতে ছাড়লো। সিডিউলে থাকা অনেক প্রোগ্রাম মিস করলাম। দুইদিন ধরে টিভিতে দেখলাম মানুষের ভোগান্তি, এগুলো আমাকে অনেক ভাবিয়েছে। আজকে নিজের চোখেও দেখলাম। সামনে ৯ মাস সময় পাওয়া যাবে অন্তত রাস্তার কাজগুলো শেষ করার এবং ব্যবস্থাপনা ভালো করার।

ঈদের ছুটির পরপরই আমার অভিজ্ঞতা থেকে মাননীয় যোগাযোগ মন্ত্রী এবং মাননীয় রেলপথ মন্ত্রীর কাছে আমার প্রস্তাবনা গুলো লিখিত ভাবে দিব।

পরিবার নিয়ে সবাই ভালো থাকবেন।’

পূর্বপশ্চিমবিডি- এনই

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী,ট্রেন সিডিউল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত