Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ২১ জুন ২০১৯, ৭ আষাঢ় ১৪২৬
  • ||

অভিনন্দন এডভোকেট দীপিকা সিং রাজাওয়াত

প্রকাশ:  ১২ জুন ২০১৯, ২২:০৭
শিহাব আহমেদ শাহীন
প্রিন্ট icon

প্রতিনিয়ত তিনি পেয়েছেন প্রাণহানি, ধর্ষণের হুমকি। এত কিছু উপেক্ষা করে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের কাঠুয়ায় আট বছরের শিশু আসিফাকে অপহরণ করে মন্দিরে নিয়ে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় পাঠানকোটের বিশেষ আদালতে আসিফার পক্ষের কৌসুলি ছিলেন এডভোকেট দীপিকা সিং।

মামলার আসামী ভারত সরকারের সাবেক এক কর্মকর্তা এবং চারজন পুলিশ সদস্যের বিরামহীন ভয় ভীতি ও হুমকী ধুমকীর মাঝেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নির্ভয়া দীপিকা দীর্ঘ ১৩ মাস বিচারিক আদালতে আইনি লড়াই চালিয়ে আসামীদের শাস্তি নিশ্চিত করেছেন। তবে পুঙ্খানুপুঙ্খ প্রমাণের অভাবে অপরাধীদের ক্যাপিটেল পানিশমেন্ট না হলেও, অত্যন্ত প্রতিকূল পরিবেশে তিনি এই মাফিয়াদের বিরুদ্ধে অন্তত 'লাইফটার্ম' আদায় করতে পেরেছেন। তাছাড়া, তথ্য–প্রমাণ নষ্ট করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আসিফাকে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় দীপিকা সিংই সবার আগে স্বপ্রণোদিত হয়ে রিট পিটিশন দাখিল করেছিলেন।আদালতে প্রথম দিনই বার এ্যাসোসিয়েশন তাঁকে বয়কট করে। প্রতিনিয়ত তিনি পেয়েছেন প্রাণহানি, ধর্ষণের হুমকি। সহকর্মী আইনজীবীদের উপেক্ষা। জুটেছে দেশদ্রোহী, টেরোরিস্ট তকমা। তারপরও দাবিয়ে রাখতে পারে নি কেউ তাঁকে। একক চেষ্টায় দীপিকা সিং মামলা নিয়ে গেছেন কাশ্মীরের হতে পাঞ্জাবের পাঠানকোট ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে। এবং অবশেষে মামলার রায়।

তাই আজ নির্ভার হয়ে স্বস্তিতে 'ভি' চিহ্ন দেখিয়ে আদালত অঙ্গন থেকে বেরিয়া আসছেন দীপিকা সিং।

অভিনন্দন সাহসীকা দীপিকা সিং!

শিহাব আহমেদ শাহীন এর ফেসবুক থেকে নেওয়া ।

পিপিবিডি/জিএম

ভারত,কাশ্মীর,এডভোকেট দীপিকা সিং
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত