Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬
  • ||

সেফুদার কাছে টাকা চাইলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর

প্রকাশ:  ১২ জুন ২০১৯, ১২:৩৮ | আপডেট : ১২ জুন ২০১৯, ১২:৪৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বহুল আলোচিত-সমালোচিত অস্ট্রিয়া প্রবাসী সেফাত উল্লাহ সেফুদার কাছে টাকা চেয়েছেন নারী উদ্যোক্তা, জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান হেলেনা জাহাঙ্গীর।

শুধু তাই নয়, তিনি সেফুদাকে অনুরোধ করেছেন তার টেলিভিশনে অভিনয় করতে। সম্প্রতি এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে বলতে শোনা যাচ্ছে “সেফুদা আমার টিভিতে অভিনয় কইরেন,

সেফুদা কিছু টাকা পয়সা দেন না,

কি চান ভালোবাসা চান?”

সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা অশ্লীল, অসঙ্গতিপূর্ণ ভিডিওবার্তা ছড়িয়ে বেশ আলোচনায় আসেন তিনি। অল্প সময়ে ফেসবুক তারকা বনে যাওয়া সেফুদা মানসিক রোগী বলে জানায় তার পরবারের সদস্যরা। তার পুরো নাম সেফাতউল্লাহ মজুমদার। লেখাপড়া করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। ১৯৯০ সাল থেকে তিনি অস্ট্রিয়ার রাজধানীর ভিয়েনায় পাড়ি জমান।

জানা যায়, এক পারিবারিক ঝগড়ার কারণে কোর্টের রায়ে দীর্ঘদিন ভিয়েনায় জেল খাটেন সেফাতউল্লাহ। মুক্ত হবার পর অস্ট্রিয়ার আইন অনুযায়ী তার লিগ্যাল হবার সব রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। যার প্রভাব পড়ে তার ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনে। স্ত্রী সন্তানদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন ও মাদকাসক্ত হয়ে ওঠেন তিনি। পরবর্তীতে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন সেফাতউল্লাহ। পরবর্তীতে ফেসবুক লাইভে অশ্লীল বক্তব্য দেওয়া শুরু করেন তিনি। তার ‘মদ খা’, ‘হিংসে হয়’ বচনগুলো ভাইরাল হয় দ্রুতই।

সবশেষ পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন শরিফ অবমাননা ও মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও অশ্লীল মন্তব্য করেন সেফাত উল্লাহ ওরফে সেফুদা। তখনও পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, তিনি মানসিক বিকারগ্রস্ত। কিশোর বয়সেই তাকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলেও জানায় পরিবার।

২৫ বছর আগে সেফাত উল্লাহর বাবা তাকে ত্যাজ্য করেছিলেন বলেও জানান স্বজনরা।

সেফাত উল্লাহর বাবা মৃত হাজি আলী আকবর তিনজনকে বিয়ে করেন। ফলে সবঘর মিলে সেফাত উল্লাহর ভাই-বোন ১৫ জনেরও বেশি। সেফাতের আপন ভাই-বোন আটজন। তবে কারো সঙ্গেই সুসসম্পর্ক নেই তার।


পিপিবিডি/এসএম

সেফুদা,হেলেনা জাহাঙ্গীর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত