Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

‘ফণী’ দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত, কমলো সংকেত

প্রকাশ:  ০৪ মে ২০১৯, ১৫:১৬ | আপডেট : ০৪ মে ২০১৯, ১৯:২০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon
ফাইল ছবি

ফরিদপুর-ঢাকা অঞ্চল এবং এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ফণী আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে স্থল গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। ফলে বিপদ সংকেত কমিয়ে দেশের সমুদ্র বন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া কক্সবাজার সমূদ্র বন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারী সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আবহওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, গভীর নিম্নচাপটির প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘণ্টায় ৫০-৬০ কিঃ মিঃ বেগে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিঃ মিঃ বেগে দমকা-ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ফণী দুর্বল হয়ে স্থল গভীর নিম্নচাপ আকারে শনিবার (৪ মে) দুপুর ১২টার দিকে পাবনা-টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ অঞ্চল এবং এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। নিম্নচাপটির প্রভাবে দেশের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে এবং দেশের অনেক স্থানে অস্থায়ীভাবে দমকা-ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি, বজ্রবৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে শনিবার বিকেল ৪টা থেকে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে মানুষকে বাড়ি ফিরতে বলা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। আর ঝড়ের কারণে সৃষ্ট প্রাকৃতিক দুর্যোগে দেশের ৫ জেলায় ৬ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ঘূর্ণিঝড়ে বরগুনার পাথরঘাটায় ২ জন, ভোলা ও নোয়াখালীতে ১ জন করে মোট ৪ জন নিহত এবং আহত হয়েছেন ৬৩ জন।

অমাবস্যা ও বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্যের কারণে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, ভোলা, হাতিয়া, সন্দ্বীপ, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ২-৪ ফুট অধিক উচ্চতার বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।


পিপিবিডি/কেএম

ঘূর্ণিঝড় ফণী,৩ নম্বর সতর্ক সংকেত,নিম্নচাপ
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত