• বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

মতিন খসরুর ফাঁকা আসনে প্রার্থী কারা

প্রকাশ:  ০৩ মে ২০২১, ২২:১২ | আপডেট : ০৩ মে ২০২১, ২২:২৯
কুমিল্লা প্রতিনিধি
আব্দুল মতিন খসরু

সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরুর শূন্য কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন দলের দুই ডজন নেতা।

বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া ঘুরে ও নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এমপি আবদুল মতিন খসরুর স্ত্রী সেলিমা সোবহান খসরুসহ কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন সম্ভাব্য প্রার্থী প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন। শোক ছাপিয়ে এখন আলোচনা চলছে কুমিল্লা-৫ আসনে কে হবেন মতিন খসরুর উত্তরসূরি।

বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া সংসদীয় আসনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে সেলিমা সোবহান খসরু জানান, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নেবেন, তাকে তিনি সাধুবাদ জানাবেন। প্রধানমন্ত্রী তাকে মনোনীত করলে স্বামীর আসনে নির্বাচন করবেন।

তবে এই মুহূর্তে স্বামীর স্মৃতি নিয়েই থাকতে চান বলে জানান সেলিমা খসরু।

সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন মতিন খসরুর অন্যতম রাজনৈতিক সহকর্মী, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বুড়িচং উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন।

তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে আওয়ামী লীগে আছি। খসরু ভাই আমার রাজনৈতিক গুরু। তিনি বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ার জন্য কাজ এনেছেন। আমি সেটি বাস্তবায়ন করেছি। দলের নেতা-কর্মীরা চায় আমি নির্বাচন করি। দল মনোনয়ন দিলে আমি অবশ্যই নির্বাচন করবো। না দিলে নির্বাচন করবো না।’

সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মনোনয়ন পেতে একঝাঁক প্রার্থীর মধ্যে অনেক অরাজনৈতিক ব্যক্তিও রয়েছেন। কোনো দিন রাজনীতি করেননি এমন ব্যক্তিও আছেন এ তালিকায়। রাজনীতি না করলে রাজনৈতিক নেতা হওয়া যায় না।

প্রার্থিতার দৌড়ে আছেন মতিন খসরুর স্নেহভাজন ও সোনার বাংলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আবু সালেক মো. সেলিম রেজা সৌরভ।

তিনি বলেন, ‘দলের নেতা-কর্মীরা নির্বাচন করার জন্য অনুরোধ করছেন। কেন্দ্রীয় নেতারা আমার বিষয়ে খুবই ইতিবাচক।’

সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপকমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মিঠু। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার হয়ে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন নেতাকর্মীদের একাংশ।

অন্যান্য সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন যুবলীগের সহসম্পাদক এহতেশামুল হাসান ভূঁইয়া রুমী, বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কুমিল্লা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি আবুল হাসেম খান, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর খান চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক দিদার মো. নিজামুল ইসলাম, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুস সালাম বেগ, প্রয়াত মতিন খসরুর সহোদর কুমিল্লা বারের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মমিন ফেরদৌস, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বুড়িচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আখলাক হায়দার, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বারী, কুমিল্লা জেলা পরিষদের (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) সদস্য তারিক হায়দার, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী চৌধুরী মানিক, ব্যারিস্টার সোহরাব হোসেন চৌধুরী, এহতেশাম রুমিসহ অনেকে।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুল ছালাম বেগ বলেন, আমি গতবারও নির্বাচন করতে চেয়েছিলাম। মনোনয়নপত্রও ক্রয় করেছিলাম, পরে নেত্রীর নির্দেশে মতিন খসরুর পক্ষে কাজ করেছি। আশা করি, এবার নেত্রী আমাকে মনোনয়ন দেবেন।

এদিকে বিএনপি থেকে রয়েছেন শিল্পপতি এসএম আলাউদ্দিন, শিল্পপতি বুড়িচং উপজেলার বিএনপির সভাপতি এটিএম মিজানুর রহমান, ব্রাক্ষণপাড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী জসিমউদ্দিন ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ।

আব্দুল মতিন খসরুর প্রয়াণের পর কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসন শূন্য ঘোষণা করেছে সংসদ সচিবালয়। সংসদ সচিবালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র সচিব জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিত বুধবারের (২২ এপ্রিল) এক গেজেটে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। সংবিধান অনুযায়ী শূন্য হওয়ার পর ৯০ দিনের মধ্যে ওই আসনে উপনির্বাচনের ব্যবস্থা করবে নির্বাচন কমিশন।

আরো পড়ুন: আসলামের আসনে এমপি হতে বহু নেতার কাড়াকাড়ি

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

আব্দুল মতিন খসরু,আওয়ামী লীগ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close