• শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

খালেদা জিয়ার জন্মদিনে চীনা দূতাবাসের উপহার

প্রকাশ:  ১৫ আগস্ট ২০২০, ০৩:১২
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৬তম জন্মদিন শনিবার। এর একদিন আগে শুক্রবার (১৪ আগস্ট) খালেদা জিয়াকে তার জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে উপহার সামগ্রী পাঠিয়েছে ঢাকাস্থ চীনা দূতাবাস।

বিকেল ৫টায় উপহার সামগ্রী নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আসেন দূতাবাসের কর্মকর্তারা। তারা উপহার সামগ্রী তুলে দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এবিএম আব্দুস সাত্তারের কাছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গুলশান কার্যালয়ের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র।

সূত্র জানায়, উপহার সামগ্রী দেওয়ার পাশাপাশি দূতাবাস কর্মকর্তারা খালেদা জিয়ার আরোগ্য কামনা করেন। উপহার সামগ্রী গ্রহণ করার পর তা খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দীন সরকার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ৭০তম জন্মবার্ষিকীর পর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালন না করার সিদ্ধান্ত হয়। সদ্য প্রয়াত ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর এমাজউদ্দীন আহমেদ অনুরোধ জানিয়েছিলেন ১৫ আগস্ট জন্মদিন পালন না করার জন্য।

গত কয়েক বছরের মতো এবারও দোয়া মাহফিলের মধ্য দিয়েই দিবসটি পালন করবে দলটি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের দিনে জন্মদিন পালনের বিতর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে জন্মদিনের কেক কাটার মতো কর্মসূচি পালন করবে না দলটি।

১৯৪৬ সালে খালেদা জিয়া জন্মগ্রহণ করেন। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর পৈতৃক বাড়ি ফেনী জেলার ফুলগাজী উপজেলার শ্রীপুরে। তার বাবা এস্কান্দার মজুমদার ছিলেন চাকরিজীবী। মাতা তৈয়বা মজুমদার ছিলেন দিনাজপুরের চন্দনবাড়ির মেয়ে। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে খালেদা জিয়া তৃতীয়। ১৯৬০ সালের আগস্টে বগুড়ার ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত সেনাকর্মকর্তা জিয়াউর রহমানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দম্পতির দুই পুত্রসন্তান। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডনে অবস্থান করছেন। ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো ইন্তেকাল করেছেন।

একই দিন ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকীও। ১৯৯১ সালে ক্ষমতায় আসার পর ১৯৯৩ সাল থেকে খালেদা জিয়ার জন্মদিনটি জাঁকজমকপূর্ণভাবে ২০১৫ সাল পর্যন্ত উদযাপন করেছে বিএনপি। সে সময় ১৪ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে কেক কেটে জন্মদিন উদযাপন করতেন খালেদা জিয়া। দলটির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোও একই ধরনের কর্মসূচি পালন করত।

জাতীয় শোক দিবসে কেক কেটে খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনের বিষয়টি নিয়ে দেশের রাজনীতিতে তুমুল বিতর্ক হয়। এ অবস্থায় ২০১৬ সাল থেকে খালেদা জিয়ার নির্দেশে তার জন্মদিনে কোনো কেক কাটা হয় না। এর পরিবর্তে বিএনপির পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

দুর্নীতির মামলায় দুই বছরের বেশি সময় জেলে থাকার পর সরকারের নির্বাহী আদেশে গত ২৫ মার্চ ছয় মাসের জন্য মুক্ত হয়ে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় অবস্থান করছেন খালেদা জিয়া।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

বেগম খালেদা জিয়া,বিএনপি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close