• বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

দেশের অবস্থা লকডাউনের পর্যায়ে: মেনন

প্রকাশ:  ২২ মার্চ ২০২০, ১৯:৫৪
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের অবস্থা লকডাউনের পর্যায়ে পৌঁছে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

রোববার (২২ মার্চ) রাজধানীর তোপখানা রোডের মেহেরবা প্লাজায় অবস্থিত ওয়ার্কার্স পার্টির ‘পার্টি স্কুল’ কার্যালয়ে যুব মৈত্রী ও ছাত্র মৈত্রীর যৌথ উদ্যোগে হ্যান্ড স্যানিট্যাইজার প্রস্তুত কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রাশেদ খান মেনন বলেন, করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার ৩ মাস নষ্ট হয়েছে, কিন্তু এই সময়ের মধ্যে দেশে শুধুমাত্র স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় একটি পরীক্ষাগার ছাড়া সরকার আর কোথাও এই ভাইরাস শনাক্তকরণের ব্যবস্থা নিতে পারেনি। এর ফলে ঢাকাতে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণে ব্যস্ত হলেও লোক মারা গেছে সিলেটে।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যেখানে পরীক্ষার উপরে জোর দিচ্ছে সেখানে এখনও আমরা কিট আনার কথা বলছি। স্বাস্থ্যকর্মীদের কোনও প্রতিরোধমূলক পোশাক না থাকায় তারা এমনই আতঙ্কিত যে, সাধারণ রোগীরাও সেবা পাচ্ছে না। সেই পোশাক এখনও আনা হচ্ছে, এই আনা কবে শেষ হবে তা কেউ জানে না।

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি বলেন, করোনাভাইরাস শনাক্তকরণে বেসরকারি হাসপাতালগুলো সরকারের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে কেন তাদের এগিয়ে আসার নির্দেশ দেয়া হচ্ছে না, তা বোধগোম্য নয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী কেবল জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলন করছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যবহারে জনগণ হতাশই নয়, বিরক্তও।

তিনি বলেন, দেশের অবস্থা লকডাউনের পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। আমাদের দেশে যারা দিন আনে দিন খায়, সেই শ্রমজীবী মানুষদের কী অবস্থা হবে? শিল্প শ্রমিকদের বেতন-বোনাসের কী হবে?

মেনন বলেন, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশ কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষদের খাদ্য ও ঔষধপত্র পৌঁছে দিচ্ছে। যুক্তরাজ্য কর্মীদের বেতনের আশি ভাগ সরকার বহন করবে বলছে। সেখানে আমাদের দেশে গার্মেন্টস শিল্পের শ্রমিকদের জন্য সরকার ব্যবস্থা নেবে বলে আশা করছি এবং এই সক্ষমতাও আমাদের আছে। ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে গ্রামীণ দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে খাদ্য পৌঁছে দিতে হবে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

দেশ,অবস্থা,লকডাউন,রাশেদ খান মেনন,ওয়ার্কার্স পার্টি,সভাপতি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close