• মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

‘যেকোনো মূল্যে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে’

প্রকাশ:  ২১ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৪০
কক্সবাজার প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের গণতন্ত্র বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের উন্নয়ন বাঁচবে না।’ তিনি আরও বলেন, ‘সেজন্য যেকোনো মূল্যে যেকোনো মূল্যে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে।’

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মী সম্মেলনে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ছিলেন কর্মী সম্মেলনের প্রধান অতিথি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির দাবি দেশে নাকি তাদের গণজোয়ার চলছে। প্রকৃত অর্থে গণজোয়ার বিএনপির দিবাস্বপ্ন। বিএনপি আন্দোলনে ভাটা, নির্বাচনেও ভাটা, জোয়ার তারা দেখে না। জোয়ার তারা কখনোই দেখতে পাবে না।

দলীয় নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ যদি ঐক্যবদ্ধ থাকে তাহলে বিএনপি রাজনীতিতে আর জোয়ার এনে দেখাতে পারবে না। তারা ভাটার মধ্যেই থাকবে।

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আওয়ামী না বাঁচলে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের গণতন্ত্র বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের উন্নয়ন বাঁচবে না, আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের অজর্ন হবে না। সেজন্য যেকোনো মূল্যে যেকোনো মূল্যে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দুঃসময়ের কর্মীরাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রাণ। ত্যাগী কর্মীদের উপেক্ষা করলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘ক্ষমতার অহংকার পতনের কারণ যেন না হয়। ক্ষমতা যেন আমাদের নেতা কর্মীদের বিনয় করে, অহংকারী নয়। বিনয়ী যত হবেন তত আপনি বড় হবেন। বিনয়ী হলে জনগণ আরো ভালবাসবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের নেত্রী ( শেখ হাসিনা) সেদিন সীমান্তের উদার দুয়ার খুলে দিয়েছেন-মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের জন্য। নেতা কর্মীদের নিয়ে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম-আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে। আজকে কক্সবাজারের মানুষ অস্তিত্বের সংকটে। উখিয়া টেকনাফের মানুষ আতঙ্কে আছে। তারা নিজভূমে পরবাসী হয়ে গেছে। আমরা যাদের মানবিক আশ্রয় দিয়েছিলাম-আজকে তাদের কারণে স্থানীয়রা মানবিক সংকটে পতিত হয়েছে।’

মন্ত্রী বলেন বলেন, রোহিঙ্গার কারণে আমাদের অর্থনীতি, আমাদের পর্যটন, আমাদের জীববৈচিত্র্য হুমকির সম্মুখীন। ১১ লাখ রোহিঙ্গা এসে ছোট্ট জায়গায় বসবাস করছে। মিয়ানমার যেন তাদের নাগরিকদের দ্রুত ফিরিয়ে নেয় সে জন্য তাদের ওপর চাপ দিতে আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছে আহ্বান জানানো হবে।

কক্সবাজার শহরের শহীদ দৌলত ময়দানে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, মহিলা সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র মজিবুর রহমান, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, আবু তালেব, জহিরুল ইসলাম, উজ্জ্বল কর, আরিফুল মাওলা, হামিদা তাহের, মোরশেদ হোসেন তানিম প্রমুখ।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দ্বিতীয়বার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর ওবায়দুল কাদেরের এটি কক্সবাজারে প্রথম সফর। দুই দিনের সফরে ওবায়দুল কাদের মঙ্গলবার বিকেলে কক্সবাজারে আসেন। বুধবার সকালে কক্সবাজার শহরের ‘লিংকরোড-লাবনি পয়েন্ট সড়ক’ চার লেনে উন্নীতকরণ কাজ পরিদর্শনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি রয়েছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

কক্সবাজার,ওবায়দুল কাদের,আওয়ামী লীগ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close