• রোববার, ৩১ মে ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

সুশাসন ও গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই: ফখরুল

প্রকাশ:  ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৩৪ | আপডেট : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৩৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই। তাই মানুষকে জাগিয়ে তুলতে হবে। হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই। নয় বছর স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়েছি। লড়াইয়ের মধ্য দিয়েই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো। দেশে সুশাসন ও গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই।

বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের অডিটোরিয়ামে উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরাম আয়োজিত তারেক রহমানের ১২তম কারামুক্ত দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। তাই খালেদা জিয়াকে গণআন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা হবে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে হত্যা করে জাতীয়তাবাদী রাজনীতিকে ধ্বংস করে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীরা সফল হয়নি। বিএনপি ফিনিক্স পাখির মতো, ধ্বংসস্তূপ থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ষড়যন্ত্রকারীরা এক এগারোর সময় বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল কিন্তু পারেনি। ষড়যন্ত্রকারীরা গুম-খুন ও হত্যা করে মনে করেছিল বিএনপিকে শেষ করে দেবে। সেটাও তারা পারেনি। এদেশের মানুষ স্বাধীনতাকামী এ অন্যায় অত্যাচার সহ্য করেও তারা টিকে আছে। এটাই হচ্ছে বিএনপি।

ফখরুল বলেন, এমন কোন দল আছে যে দলের ২৬ লাখ নেতাকর্মী আসামি, এক লাখেরও বেশি মামলা এবং পাঁচশ’র বেশি নেতাকর্মী গুম। তারপরও তো একটি কর্মী দল ছেড়ে যায়নি। নির্যাতন সহ্য করেও তারা গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আন্দোলন করে যাচ্ছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা মনে করেছিল খালেদা জিয়া কারাগারে গেলে দল শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু তাদের স্বপ্ন পূরণ হয়নি। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিদেশ থেকে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তারেক রহমানের নেতৃত্বে দল সংগঠিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, দেশে যে সংকট তৈরি হয়েছে। এ সংকট বিএনপির সংকট নয়, এটা পুরো জাতির সংকট।

সংগঠনের সভাপতি আমিরুল ইসলাম আলিমের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, শিমুল বিশ্বাস, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিবুন নবী খান সোহেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

বিএনপি,মহাসচিব,ফখরুল ইসলাম আলমগীর,জাতীয় প্রেসক্লাব,রাজনীতি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close