Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

বৃহস্পতিবার থেকে চারুকলায় শুরু হচ্ছে দু'দিনব্যাপী নবান্ন উৎসব

প্রকাশ:  ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ০১:৩০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের বকুলতলায় নানান আয়োজনের মধ্যে দিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার (বাংলা ১ অগ্রহায়ণ) থেকে শুরু হবে দু’দিনব্যাপী জাতীয় নবান্ন উৎসব-১৪২৫। উৎসব চলবে শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) পর্যন্ত।

মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব বিষয়ে জানায় জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, উৎসবের প্রথম দিন সকাল ৭টা ১ মিনিট থেকে শুরু হবে এবারের আনুষ্ঠানিকতা। এবছর উৎসবের উদ্বোধন করবেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদের চেয়ারপারসন লায়লা হাসান, আহ্বায়ক শাহরিয়ার সালাম এবং এবারের আয়োজনের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ল্যাব এইডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ এম শামীম।

এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পর্ষদের আহ্বায়ক শাহরিয়ার সালাম। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসন লায়লা হাসান, কো-চেয়ারম্যান হাসিনা মমতাজ ও বাবুল বিশ্বাস, ল্যাবএইডের কর্মকর্তা সাইফুর রহমান লেনিন, পর্ষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নাঈম হাসান সুজা, আবুল ফারাহ পলাশসহ প্রমুখ। লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে উৎসবের বিষয়ে বিস্তারিত জানানোর পাশাপাশি ১ অগ্রহায়ণকে ‘জাতীয় নবান্ন দিবস’ ঘোষণা এবং এ দিবসটিকে সাধারণ ছুটি ঘোষণার দাবি জানানো হয়।

সংগঠনের নেতারা জানান, উন্নত দেশগুলোতে যেখানে রাষ্ট্রীয়ভাবে নবান্ন উৎসব আয়োজন করা হয় সেখানে বাংলাদেশ কৃষিনির্ভর দেশ হওয়া সত্ত্বেও রাষ্ট্রীয়ভাবে নবান্ন উৎসবের আয়োজন হয় না। সব সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের উত্থান ঠেকাতে বাঙালির নিজস্ব ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতিচর্চা বিশেষ করে নবান্ন উৎসব আয়োজন ও অংশগ্রহণে সর্বস্তরের মানুষের প্রতি আহবান জানানো হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে। উৎসবে সঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তি, নবান্ন শোভাযাত্রা, আদিবাসী পরিবেশনাসহ বিভিন্ন পরিবেশনা থাকবে। এছাড়াও থাকবে ঢাক-ঢোলের বাদন আর মুড়ি-মুড়কি-বাতাসা ও পিঠার আয়োজন। দ্বিতীয় দিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত নবান্নের শিশুপ্রহর ঘোষণা করা হয়েছে। এসময়ে মঞ্চে ২২টি শিশু সংগঠনের পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হবে এবং প্রাঙ্গণে শিশুরা দিনভর নবান্নের চিত্রাঙ্কনে অংশ নেবে।

সম্প্রতি জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদের আয়োজনে শিশুদের চিত্রাঙ্কনের প্রায় চারশত ছবির দু’দিনব্যাপী উন্মুক্ত প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। আর শিশুদের অঙ্কিত ছবি নিয়ে প্রকাশিত হবে পোস্টকার্ড। দু’দিনের উৎসবে ৬৮টি সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ প্রায় এক হাজার ২০০ শিল্পীসঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তিশিল্পী তাদের শিল্প পরিবেশন করবেন।

ওএফ

apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত