• রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯
  • ||

সাফজয়ীদের ৫ লাখ টাকা করে উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:  ০৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের ৫ লাখ, প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তদের দুই লাখ টাকা করে আর্থিক সম্মাননা প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (৯ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে এক সংবর্ধনায় এই আর্থিক সম্মাননা দেন প্রধানমন্ত্রী।

সম্পর্কিত খবর

    এ সময় প্রধনমন্ত্রী পড়ালেখার পাশাপাশি সন্তানদের খেলাধুলায় উৎসাহিত করতে অভিভাবকদের পরামর্শ দেন।

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “আমাদের ছেলেরা যা পারেনি, মেয়েরা তা পেরেছে। ছেলেরা শুনলে একটু রাগ করবে। রাগ করার কিছু নেই।”

    উপস্থিত খেলোয়াড়দের শুভেচ্ছা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “সবাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই। খেলার জগতে আসলেই আমার পরিবারের কথা মনে পড়ে। আমার দাদা ফুটবল খেলতেন, আমার বাবা ফুটবল খেলতেন। আমার দাদা ও আমার বাবা খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। আমার ভাই শেখ কামাল ফুটবল খেলতেন। জামাল ফুটবল, ক্রিকেট খেলতেন। আমার বাসাটাই ছিল স্পোর্টস জগত। আমার পরিবারটা খেলাধুলার সাথে সম্পৃক্ত। আবাহনী ক্রীড়াচক্র যখন তৈরি করা হয় তখন আমরা সাধ্য মতো সহযোগীতা করেছিলাম।”

    সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সাফজয়ী খেলোয়াড়রা প্রধানমন্ত্রীর হাতে তাদের চ্যাপিম্পয়ন ট্রফি তুলে দেন।

    যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফুটবল ক্লাবের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া সচিব মেজবাহ উদ্দিন।

    সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে খেলার স্মৃতিচারণ করেন নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। অনুষ্ঠানে ‘সাফ ওমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২২’ এর ওপরে একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

    গত ১৯ সেপ্টেম্বর কাঠমান্ডু দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে সাফ ফাইনালে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। পরে ট্রফি নিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে দেশে ফেরেন চ্যাম্পিয়ন কন্যারা। গোটা দেশ বরণ করে নেয় তাদের।

    এর মধ্য দিয়ে উনিশ বছর পর মেয়েদের হাত ধরে ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব আসে বাংলাদেশে। ছাদখোলা বাসে বর্ণাঢ্য সংবর্ধনা দেয় দেশের সাধারণ মানুষ, যা দেশের ক্রীড়াঙ্গনের ইতিহাসে ছিল অনন্য নজির। রাষ্ট্রীয় কাজে তখন দেশের বাইরে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই মেয়েদের সংবর্ধনা দিতে পারেননি।

    তবে দেশে ফিরেই ঘোষণা আসে সংবর্ধনার। সে হিসেবে ৯ নভেম্বর (বুধবার) সাফজয়ীদের আর্থিক সম্মাননা ও সংবর্ধনা দেয়া হয় প্রধানমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে।

    এর আগে সাফ জয় করে সাবিনারা দেশে ফেরার পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানিয়েছিলেন, সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের সবার ঘরের অবস্থা পরিদর্শন করে তা জানাতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যাদের ঘরের অবস্থা ভালো নয়, যাদের ঘর দরকার, তাদের নতুন ঘর বানিয়ে দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close