• সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

হাজী সেলিম আত্মসমর্পণ করবেন ২২ মে

প্রকাশ:  ১৬ মে ২০২২, ১৪:১৮ | আপডেট : ১৬ মে ২০২২, ১৪:২৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের দায়ে দুদকের মামলায় হাইকোর্টের রায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ঢাকা-৭ আসনের ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম চলতি সপ্তাহে আদালতে আত্মসমর্পণ করছেন না।

সোমবার (১৫ মে) তার প্রধান আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমেদ রাজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আগামী ২২ মে হাজী সাহেব আত্মসমর্পণ করবেন। আমি বার কাউন্সিলের নির্বাচনে ভোট চাইতে এই মুহূর্তে অবস্থান করছি সিলেট। এ সপ্তাহের পুরো সময় সিলেটেই থাকবো। আমি আসার পর আগামী রোববার হাজী সাহেব আত্মসমর্পণ করবেন।’

সাইদ আহমেদ রাজা আরও বলেন, আমার মক্কেল দুদকের মামলায় একটি ধারায় বিচারিক আদালতে খালাস পেয়েছেন। সেই খালাসের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছে দুদক। এই আপিল বিষয়ে আমরা পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেব। আর যে ধারায় হাজী সেলিমকে দশ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে, সেই সাজার রায়ের বিরুদ্ধেও আপিল করব।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১০ মে) হাজী সেলিমকে দুদকের মামলার একটি ধারায় খালাস দিয়ে রায় বাতিল চেয়ে লিভ টু আপিল করে দুদক।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ মামলায় ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকার স্পেশাল জজ আদালত-৭ এর বিচারক তাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন। এরপর ২০০৯ সালের ২৫ অক্টোবর রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন হাজী সেলিম। পরে ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাজী সেলিমকে খালাস দেন হাইকোর্ট।

পরবর্তীকালে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করে দুর্নীতি দমন কমিশন। শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টের রায়টি বাতিল করে পুনরায় শুনানির নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ। এরপর ২০২০ সালের ১১ নভেম্বর এ মামলার বিচারিক আদালতে থাকা যাবতীয় নথি (এলসিআর) তলব করেন হাইকোর্ট। সে আদেশ অনুসারে নথি আসার পর আপিল শুনানি করা হয়।

এদিকে, শুনানি শেষে ২০২১ সালের ৯ মার্চ রায় ঘোষণা করেন বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের ভার্চুয়াল বেঞ্চ। রায়ে হাজী সেলিমের ১০ বছরের সাজা বহাল রাখা হয়। ২০২২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রায়ের কপি আদালত থেকে নামে (রায় প্রকাশিত হয়)। পরে ৯ মার্চ সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হয়। আর রায়টি অফিসিয়ালি বিচারিক আদালতে কমিউনিকেট (পাঠানো) হয় ২৫ এপ্রিল। এরই মধ্যে গত ২৭ এপ্রিল থেকে কোর্ট বন্ধ হয়ে যায়। তবে হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে ২৫ এপ্রিল থেকে ৩০ দিন সময় পাবেন হাজী সেলিম।

পূর্বপশ্চিম- এনই

হাজী সেলিম
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close