• বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯
  • ||

ইন্দোনেশিয়া ও আর্জেন্টিনা থেকে বন্দরে এসেছে ৪৭ হাজার টন ভোজ্যতেল

প্রকাশ:  ০৬ মে ২০২২, ২০:১৭
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

ইন্দোনেশিয়া ও আর্জেন্টিনা থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে চারটি জাহাজে এসেছে ৪৭ হাজার ৪৪ মেট্রিকটন ভোজ্যতেল। এরই মধ্যে এসব তেল খালাস শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (৬ মে) চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব ওমর ফারুক জানান, গত ২৯ এপ্রিল থেকে এসব জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে ভিড়তে শুরু করে। এরই মধ্যে কয়েকটি জাহাজের খালাস কার্যক্রম প্রায় শেষ পর্যায়ে।

তিনি আরও জানান, শিল্পপ্রতিষ্ঠান টিকে গ্রুপের আমদানি করা ১৩ হাজার টন ভোজ্যতেল নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার পতাকাবাহী জাহাজ আজ শুক্রবার চট্টগ্রাম বন্দরে ভেড়ার কথা রয়েছে। কয়েকদিন আগে প্রায় দুই কোটি ২৯ লাখ লিটার তেল নিয়ে সিঙ্গাপুর থেকে একটি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে আসে।

বন্দরে আসা এসব তেল দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের সংকট কিছুটা কমাবে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, এর মধ্যে আজ চট্টগ্রাম বন্দরে আসছে ১৩ হাজার টন ভোজ্যতেল। ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা এ তেল নিয়ে ‘এমটি সুমাত্রা পাম’ নামের একটি জাহাজ শুক্রবার চট্টগ্রাম বন্দরে নোঙ্গর ফেলবে। এর আগে গত এপ্রিল মাসে পাঁচটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের আমদানি করা এক লাখ ২০ হাজার টন ভোজ্যতেল দেশে এসেছে।

চট্টগ্রাম বন্দর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ এপ্রিল ইন্দোনেশিয়ার লুবুক গেয়াং বন্দর থেকে ১৩ হাজার টন ভোজ্যতেল নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে ‘এমটি সুমাত্রা পাম’। জাহাজটি শুক্রবার চট্টগ্রাম বন্দরে ভেড়ার কথা রয়েছে। জাহাজটি আসার সঙ্গে সঙ্গে দ্রুত খালাসের ব্যবস্থাও করবে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

গত এপ্রিল মাসে সিটি গ্রুপ, সেনা কল্যাণ ভোজ্য তেল, বাংলাদেশ ভোজ্য তেল, বসুন্ধরা গ্রুপ ও টিকে গ্রুপ মিলে মোট এক লাখ ২০ হাজার টন ভোজ্যতেল আমদানি করেছে।

এর আগে, গত ২৬ এপ্রিল সিঙ্গাপুর থেকে দুই কোটি ২৯ লাখ লিটার অপরিশোধিত সয়াবিন তেল নিয়ে ‘এমভি ওরিয়েন্টচ্যালেঞ্জ’ নামের একটি জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে আসে। সিটি গ্রুপ, সেনা কল্যাণ ভোজ্য তেল, বাংলাদেশ ভোজ্য তেল ও বসুন্ধরা গ্রুপ এ তেল আমদানি করে। এবার ১৩ হাজার টন ভোজ্যতেল আমদানি করছে টিকে গ্রুপ।

পূর্বপশ্চিম- এনই

ভোজ্য তেল,সয়াবিন তেল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close