• শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
  • ||

টিপু হত্যায় ‘চুক্তি’ ১৫ লাখ, দুবাই বসে খুনি নিয়োগ

প্রকাশ:  ০২ এপ্রিল ২০২২, ১৪:২৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে হত্যার জন্য ১৫ লাখ টাকা বাজেট করা হয়। আন্ডার ওয়ার্ল্ড ডন মুসা দুবাই বসে খুনি নিয়োগ করা থেকে শুরু করে হত্যার সব পরিকল্পনা করেন।

টিপু হত্যার মাস্টারমাইন্ডসহ চারজন গ্রেফতার হলে তাদের কাছ থেকে এসব তথ্য জানতে পারে র‌্যাব।

টিপু খুনে জড়িত সন্দেহে গতকাল চারজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তারা হলেন ওমর ফারুক, আবু সালেহ শিকদার, নাছির উদ্দিন এবং মোরশেদুল আলম। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কাছে হত্যাকাণ্ডের চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পারে এলিট ফোর্সটি।

গ্রেফতারদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে শনিবার (২ এপ্রিল) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয় র‌্যাবের পক্ষ থেকে। র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন এলিট ফোর্সটির সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, টিপুকে হত্যার জন্য ১৫ লাখ টাকা বাজেট করেন পরিকল্পনাকারীরা। আন্ডার ওয়ার্ল্ড ডন মুসার ওপর দায়িত্ব আসে টিপুকে হত্যার। ঘটনার ১২ দিন আগে মুসা দুবাই চলে যান। সেখানে বসে তিনি খুনি নিয়োগ করা থেকে শুরু করে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

র‍্যাব জানায়, মতিঝিল এলাকার চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, স্কুল-কলেজের ভর্তি বাণিজ্য, বাজার নিয়ন্ত্রণ, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই টিপুর সঙ্গে খুনিদের বিরোধ চলছিল। এছাড়া ২০১৩ সালে রাজধানীর গুলশান শপার্স ওয়ার্ল্ডের সামনে খুন হওয়া যুবলীগ নেতা মিল্কীর সহযোগী ছিলেন গ্রেফতাররা। মিল্কী হত্যায় টিপু জড়িত ছিলেন বলে সন্দেহ করতেন গ্রেফতাররা। এসব দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করেই টিপুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

গত ২৪ মার্চ রাতে শাহজানপুর এলাকার ব্যস্ত সড়কে গুলি করে হত্যা করা হয় জাহিদুল ইসলাম টিপুকে। খুনিদের এলাপাথাড়ি গুলিতে নিহত হন রিকশা আরোহী সামিয়া আফরান প্রীতি নামে এক কলেজছাত্রী।

ঘটনার পরদিন টিপুর স্ত্রী ফারজানা ইসলাম ডলি বাদী হয়ে শাহজাহানপুর থানায় একটি মামলা করেন।

পূর্ব পশ্চিম/জেআর

টিপু
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close