• রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

ই-কমার্সের অর্থ ফিরিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব রাষ্ট্রকেই নিতে হবে: টিক্যাব

প্রকাশ:  ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:০৯
নিজস্ব প্রতিবেদক

ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জ, সিরাজগঞ্জ শপ, ধামাকাসহ বিভিন্ন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে যেসব গ্রাহক অর্থ পরিশোধের পরও পণ্য পাননি তাদের সে টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব রাষ্ট্রকে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে টেলি কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব)।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর তোপখানা রোডের রেলপোষ্য সোসাইটি মিলনায়তনে টিক্যাবের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ই-কমার্সের নামে গ্রাহকের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার মহোৎসব: দায়টা আসলে কার?’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানায় সংগঠনটি।

আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে টিক্যাবের আহ্বায়ক মুর্শিদুল হক বলেন, ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের কর্ণধাররা এখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে বন্দি। এ অবস্থায় নিজেদের অর্থ ফিরে পাওয়া নিয়ে আতঙ্কিত তাদের লাখ লাখ গ্রাহক। শুধু এ দুটি প্রতিষ্ঠানই নয়, প্রতিদিনই নতুন নতুন প্রতিষ্ঠানের নামে সারা দেশে একই কায়দায় লোভনীয় অফারের ফাঁদে ফেলে গ্রাহকদের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠছে।

তিনি বলেন, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর এমন প্রতারণা প্রকাশের পর এখন প্রশ্ন হচ্ছে এর দায় কার? অবশ্যই এর প্রধান দায় প্রতারক চক্রের। এরপর দায় সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের, যারা সময়মতো তদারকি করে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি। আর কিছুটা দায় গ্রাহকদের ওপরেও বর্তায়, যারা বাস্তবতা বিবেচনা না করে লোভনীয় অফারে আকৃষ্ট হয়েছেন। দায় যারই হোক, গ্রাহকরা রাষ্ট্রের নাগরিক।

এ সময় টিক্যাবের পক্ষ থেকে ৪টি প্রস্তাবনা পেশ করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জে অবিলম্বে প্রশাসক নিয়োগ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে একটি বিশেষ সেল গঠন, ডিজিটাল কমার্স নির্দেশিকা-২০২১ এর পাশাপাশি এখাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, প্রতারণা ঠেকানো ও গ্রাহকদের স্বার্থ সুরক্ষায় ‘আইন’ প্রণয়ন এবং ই-কমার্স খাতের প্রতি গ্রাহকদের আস্থা টিকিয়ে রাখতে একটি আলাদা কমিশন গঠন করা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এআই

ই-কমার্স,অর্থ,টিক্যাব
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close