• রোববার, ০৯ মে ২০২১, ২৬ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

দোকানপাট-শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত

প্রকাশ:  ২৮ এপ্রিল ২০২১, ১৫:০৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে চলমান বিধিনিষেধ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এ বিধিনিষেধ আগামী ৫ মে পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। তবে এ সময়ে দোকানপাট ও শপিংমলগুলো খোলা রাখা যাবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। এই নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে সরকার।

আর এই সময়ে আগের ধারাবাহিকতায় সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

.

বুধবার (২৮ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ‘করোনা ভাইরাসজনিত রোগের (কোভিড-১৯) বিস্তার রোধে সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে বিধিনিষেধের সময়সীমা বর্ধিতকরণ’ বিষয়ক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, দোকানপাট/শপিংমাপসমূহ সকাল ১০টা হতে রাত ৮টা পর্যন্ত যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন সাপেক্ষে খোলা রাখা যাবে। স্বাস্থ্য বিধি প্রতিপালনের বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, শ্রম মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠনসহ সংশ্লিষ্ট বাজার সংস্থার ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রয়োজনে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সাংবাদিকদের জানান, বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে চলমান বিধিনিষেধ আরও এক সপ্তাহ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ সময় দোকানপাট ও শপিংমল সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চালু থাকবে।

এর আগে চলমান বিধিনিষেধ শিথিল করে গত রোববার থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে বলে সিদ্ধান্ত দেয় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে বলে জানায়। পরে ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দোকান ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে জানানো হয়।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়, সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত যে সিদ্ধান্ত ছিল, তা পরিবর্তন হয়ে আজ থেকেই রাত ৯টা পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

সর্বশেষ বুধবার জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বিধিনিষেধ চলাকালীন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার কথা বলেন।

গত ১৪ এপ্রিল সকাল থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত সারা দেশে কঠোর লকডাউন ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। পরে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় চলমান কঠোর বিধিনিষেধ (লকডাউন) ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ বিস্তাররোধে চলমান বিধিনিষেধ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর ব্যাপারে আগামীকাল মঙ্গলবার প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে।

এর আগে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপ কমাতে গত ৫ এপ্রিল লকডাউন ঘোষণা করলেও সীমিত পরিসরে সরকারি-বেসরকারি অফিস, আদালত, ব্যাংক ইত্যাদি খোলার রাখার অনুমতি দিয়েছিল। এরই একদিন পরে রাস্তায় গণপরিবহনের সংকট দেখা দিলে ৭ এপ্রিল থেকে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলার অনুমতি দেয় সরকার। বর্তমান লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

করোনাভাইরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ঘটনা পরিক্রমা : করোনাভাইরাস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close