• বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১ ফাল্গুন ১৪২৭
  • ||

রেল আগের চেয়ে ভালো চলছে: রেলমন্ত্রী 

প্রকাশ:  ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:০৮
দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর রেলকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন উল্লেখ করে রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, যে দেশ যতো উন্নত সে দেশের রেল যোগাযোগ ততো উন্নত।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে দিনাজপুর রেল স্টেশনের উঁচু ও বর্ধিত প্ল্যাটফরম এর শুভ উদ্ধোধন ও আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন ।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের রেলের অনেক ক্ষতি হয়েছে। এর নিদিষ্ট হিসাব আমাদের কাছে নেই। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের রেল যোগাযোগ ছিলো মাত্র ৩০ হাজার কিলোমিটার আর সড়ক পথ ছিলো মাত্র সাড়ে ৩ হাজার কিলোমিটার। আর এখন সড়ক পথ হয়ে গেছে ৪০ হাজার কিলোমিটার, আর রেলপথ ২ শত মিটার কমে গিয়ে হয়েছে ২ হাজার ৮শ’ কিলোমিটার। রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা অবহেলিত পড়ে ছিলো। ১৯৭৩ সালে রেলের কর্মকর্তা কর্মচারী ছিলো ৬৮ হাজার এখন সে কমে হয়েছে মাত্র ২৫ হাজার।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যুদ্ধ বিপর্স্ত বাংলাদেশে হার্ডিঞ্জ রেল ব্রিজ, তিস্তা রেল ব্রিজ, ভৈরব ব্রিজ দ্রুত সময়ের মধ্যে মেরামত করে রেল চালু করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পরে রেলকে অবরুদ্ধ করা হয়েছিলো। রেলকে প্রাইভেট সেক্টেরে দেওয়ার জন্য ষড়যন্ত্র হয়েছিলো।

জয়দেবপুর থেকে ঈশ্বরদী পর্যন্ত রেলের ডাবল লাইন হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, যমুনা সেতু পার হওয়ার পরে শহীদ মনসুর আলী স্টেশন থেকে সিরাজগঞ্জ থেকে বগুড়া পর্যন্ত সরাসরি একটা নতুন রেল লাইন হবে এতে করে দিনাজপুরসহ এই অঞ্চলের মানুষের ঢাকা যাতায়াতের জন্য ২ ঘণ্টা রাস্তা কমে আসবে।

তিনি বলেন, মংলা পর্যন্ত রেল লাইন সম্প্রসারনের কাজ শুরু হয়েছে। আগামী বছরের জুলাই মাসের মধ্যে মংলা পর্যন্ত রেল চালু হবে। আগামী বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে রেলপথে দিনাজপুর থেকে সরাসরি কক্সাবাজার পর্যন্ত চালু হবে উল্লেখ করে সুজন বলেন, ইতোমধ্যেই পঞ্চগড় পর্যন্ত রেলপথ সম্প্রসারন হয়ে গেছে আমরা ভারতের শিলিগুড়ি দাজিলিং পর্যন্ত রেলপথ সম্প্রসারনের পরিকল্পনা রয়েছে। এতে করে দাজিলিং শিলিকুড়ি যেতে আমাদের কোনো অসুবিধা হবে না।

তিনি বলেন, আমাদের পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে রেল চালু হবে। সেদিন পদ্মা সেতু সড়ক পথের জন্য খুলে দেওয়া হবে সেই দিনও যেন ভাঙ্গা থেকে মাওয়া পর্যন্ত রেল চালু করা হবে সেই লক্ষ নিয়ে কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। রেল আপনাদের সম্পদ এবং রেল ভ্রমণ নিরাপদ ও সাশ্রয়ী, রেল আগের চেয়ে ভালো চলছে এটার কৃতিত্ব আপনাদের।

আগে রেলের টিকিট কালোবাজারী হতো অভিযোগ পাওয়া যেতো উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বলেন, এখনো যদি টিকিট কালোবাজারী হয় থাকে তাহলে অবশ্যই তা দুর করার ব্যবস্থা করা হবে। যদি কোনো রেলের কর্মকর্তা-কর্মচারী টিকিট কলোবাজারীর সাথে জড়িত থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আগে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে (পশ্চিম) মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন- রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম রেজা, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ডি এন মজুমদার, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম, দিনাজপুর পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী প্রমুখ।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

রেলমন্ত্রী,রেল,প্রধানমন্ত্রী,শেখ হাসিনা,ক্ষমতা,নুরুল ইসলাম সুজন,দিনাজপুর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close