• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

আগুনে ৫ করোনা রোগীর মৃত্যু, ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ:  ০৩ জুন ২০২০, ২৩:১১ | আপডেট : ০৪ জুন ২০২০, ০০:৫৫
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফাইল ছবি

রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে আগুনে পুড়ে রোগী মারা যাওয়ার ঘটনায় হাসপাতালের প্রধান নির্বাহী, ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। গুলশান থানায় বুধবার (৩ জুন) রাতে নিহতের আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ভেরুন এন্থনি পলের মেয়ের জামাই রোনাল্ড নিকি গোমেজ বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

গুলশান থানার কর্তব্যরত কর্মকর্তা এস আই তোফাজ্জল হোসেন বলেন, বুধবার রাত ৯টার দিকে সিইও, এমডি, চিকিৎসক ও নার্সসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নিহতের এক স্বজন। মামলায় অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগ আনা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে বিষয়টি তদন্তের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

রাজধানীর ব্যয়বহুল এই হাসপাতালটিতে গত বুধবার ( ২৭ মে) রাত ১০টার দিকে এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পাঁচ জন রোগী নিহত হন। তারা হলেন- মো. মাহবুব (৫০), মো. মনির হোসেন (৭৫), ভারনন অ্যান্থনি পল (৭৪), খোদেজা বেগম (৭০) ও রিয়াজ উল আলম (৪৫)।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে ইউনাইটেড হসপিটালের চেয়ারম্যান হাসান রাজা জানান, নিহতরা লাইফ সাপোর্টে ছিলেন এবং এসির সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়েছে। হসপিটালের ওই অংশটি মাসখানেক আগে চালু করা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ডাক্তার-নার্সদের কেউ হতাহত হয়নি।

ডিসি গুলশান সুদীপ চক্রবর্তী জানান, নিহতদের মধ্যে ৩ জনের করোনা পজিটিভ এবং ২ জনের নেগেটিভ। পজিটিভদের দাফন আইইডিসিআরের গাইড লাইন অনুসারে হবে। অন্য দুইজনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ডিসি তখন আরও বলেন, করোনা আসোলেশন ইউনিটে প্রচুর স্যানিটাইজারসহ অন্যান্য দাহ্য পদার্থ ছিল। দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন দ্রুত ছড়ায়। ৯টা ৪৮ মিনিটে ১ রোগীর স্বজন ৯৯৯ এ ফোন করে আগুনের খবর দেয়। পরে ভাটারা থানা পুলিশ বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসে জানায়। তারা এসে আগুন নেভায়।

কীভাবে আগুন লাগল এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনো গাফিলতি ছিল কিনা তা জানতে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের পক্ষ থেকে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।সাত কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে করোনা ইউনিটের পাঁচ রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট।

ইউনাইটেড হাসপাতাল, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে আগামী ১৪ জুনের মধ্যে এ প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে হবে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

ইউনাইটেড হাসপাতাল,করোনাভাইরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close