• বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

সরকার পরিবহন ব্যবসায়ীদের স্বার্থ দেখছে: যাত্রী কল্যাণ সমিতি

প্রকাশ:  ৩০ মে ২০২০, ১৭:৪৩
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা মহামারির সময়ে সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের অজুহাতে গণপরিবহনের ৮০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়ার প্রস্তাব অনতিবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

শনিবার সংগঠনের মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের পদক্ষেপ না নিয়ে, জ্বালানী তেলের মূল্য না কমিয়ে, পরিবহনের চালক-শ্রমিকদের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ সম্পর্কিত কোনো প্রকার প্রশিক্ষণ না দিয়ে, গণপরিবহন চালুর মধ্য দিয়ে জনগণকে চরম ঝুঁকির মধ্যে ফেলা হচ্ছে। উল্টো গণপরিবহনের ভাড়া বাড়িয়ে দিয়ে সরকার সড়কে নৈরাজ্য ও যাত্রী হয়রানি আরও বৃদ্ধির সুযোগ তৈরি করেছে। সরকার জনগণের স্বার্থ না দেখে পরিবহন ব্যবসায়ীদের স্বার্থ দেখছে।

যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব বলেন, যেকোনো সংকটে বা অজুহাতে দেশে গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ালে তা স্বাভাবিক সময়ে কমানোর কোনো নজির নেই। সরকার এক লাফে ৮০ শতাংশ ভাড়া বর্ধিত করলেও প্রকৃতপক্ষে বাস মালিকরা নানা ছলচাতুরী করে ১২০ থেকে ২০০ শতাংশ পর্যন্ত ভাড়া বাড়িয়ে দেবে।

অনতিবিলম্বে গণপরিবহনের বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার করে রাষ্ট্রীয় ভর্তুকি দিয়ে বিদ্যমান ভাড়ায় জনসাধারণকে যাতায়াতের সুযোগ করে দেওয়ার দারি জানিয়েছেন তিনি।

পূর্বপশ্চিম- এনই

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি,বাসের ভাড়া,গণপরিবহন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close