• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

বাড়িতেও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখুন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

প্রকাশ:  ১১ এপ্রিল ২০২০, ০০:২২ | আপডেট : ১১ এপ্রিল ২০২০, ০০:২৫
নিজস্ব প্রতিবেদক
করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে বাসায় অবস্থান করছেন বেশিরভাগ মানুষ। ঢাকার মোহাম্মদপুর থেকে শুক্রবার তোলা ছবি।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে প্রত্যেককে বাড়ির অভ্যন্তরেও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বিশেষ করে যারা বাড়ির বাইরে বিভিন্ন পরিষেবার কাজ করছেন তাদের প্রতি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক সানিয়া তাহমিনা ঝোড়ার এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, স্বাস্থ্যকর্মী, জরুরি পরিষেবা প্রদানকারী, সাংবাদিকরা যারা ঘরের বাইরে কাজ করছেন তাদেরকে কঠোরভাবে পরিবারের অন্যদের থেকে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। কারণ তারা যে কেউ অসুস্থ হতে পারেন এমনকি করোনাভাইরাস দ্বারাও আক্রান্ত হতে পারেন।

বিবৃতিতে, যারা স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সহায়তা করায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, দেশে ঢাকার ভেতরের নয়টি ও ঢাকার বাইরের আটটিসহ মোট ১৭টি প্রতিষ্ঠান করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার ভেতরে-বাইরে মোট ভোট ১ হাজার ২৯৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরমধ্যে পরীক্ষা করা হয়েছে ১ হাজার ১৮৪টি। সর্বমোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭ হাজার ৩৫৯টি। ৯ এপ্রিল সারাদেশে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১ হাজার ৯৭টি। এর আগে ৮ এপ্রিল নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৮১টি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা বলেন, আমাদের পর্যাপ্ত টেস্ট কিট মজুদ আছে। এ পর্যন্ত টেস্ট কিট সংগ্রহ করা হয়েছে ৯২ হাজার। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিতরণ করা হয়েছে ২০ হাজার। মজুদ আছে ৭২ হাজার। সংশ্লিষ্ট ল্যাবগুলোতে পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় নতুন কিট সরবরাহের প্রয়োজন হয়নি।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ জনে। আর নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪২৪ জন।

তিনি বলেন, ৯৪ জনের মধ্যে পুরুষ ৬৯ জন, নারী ২৫ জন। বয়স বিভাজনের ক্ষেত্রে ১০ বছরের নিচে আছে চার জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ২১ থেকে ৩০ মধ্যে ১২ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরে মধ্যে ১৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, বাকিরা ৬০ এর অধিক বয়সের।

তিনি বলেন, ৯৪ জনের মধ্যে ৩৭ জন ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকার। বাকিরা সবাই ঢাকার বাইরের। এরমধ্যে নারায়ণগঞ্জের রয়েছে ১৬ জন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

করোনাভাইরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close