• বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

করোনায় কী অবস্থায় বাংলাদেশ? স্পষ্ট করলেন ডা. আজাদ

প্রকাশ:  ০৬ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৪৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়েছিল। এর ১১ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ দেশে প্রথম কোনও ব্যক্তি এ ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। এরপর প্রায় প্রতিদিন একজন দুজন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছিল। বাড়ছিল মৃত্যুও। মাঝের কয়েকদিন মৃত্যুর কোনও খবর আসছিল না। সংক্রমণের সংখ্যাও ছিল হাতে গোনা। ওই সময়ই করোনা ভাইরাস নিয়ে আইইডিসিআর কিংবা সরকারের ‘তথ্য গোপন নীতি’ অবলম্বন করছে কিনা এমন সংশয় উঁকি দিতে থাকে মানুষের মনে। তবে এবার এক কথাতেই দেশের করোনা পরিস্থিতি খোলাসা করলেন বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

সোমবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) এর নিয়মিত ব্রিফিংয়ে তিনি দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে স্পষ্ট করে বলেন, ‘করোনা ভাইরাস আর এক স্থানে সীমাবদ্ধ নেই। এটি বেড়েই চলেছে। নতুন করে আজ ৩৫ জন সনাক্ত ও ৩ জন মারা গেছে।’

আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশ থেকে ৪৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত সর্বমোট ৪ হাজারা ১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৩৯ জনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৭০৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৩০ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এর বাইরে ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ২৩ জনকে।’

নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সোমবার সকালে মারা যাওয়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক জালাল সাইফুর রহমানের বয়স ছিল ৪৮ এবং তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন বলেও ব্রিফিংয়ে জানান আবুল কালাম আজাদ।

এদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি বলেছেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ৩৫, তার মানে সর্বমোট সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা ১২৩। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩টি, সর্বমোট ১২। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে কেউ সুস্থ হয়নি। তার মানে সর্বমোট রিকোভারির সংখ্যা ৩৩।’

ডা. ফ্লোরা বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ৩৫, মোট ১২৩। মৃত্যু ৩টি, মোট ১২। নতুন কেউ সুস্থ হয়নি।’

তিনি জানান, ‘নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ১১ জন, ২১-৩০ বছর বয়সী ৬ জন। পুরুষ ৩০ জন, মহিলা ৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৩৫ জনের মধ্যে ১২ জনই নারায়ণগঞ্জে। নারায়ণগঞ্জে এখন মোট আক্রান্ত ২৩ জন। এলাকাভিত্তিক ঢাকায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত ৬৪ জন। এরপরই মাদারীপুর।’

আইইডিসিআর-এর ব্রিফিংয়ের কয়েক ঘণ্টা আগেই রাজধানীর বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনসে (বিসিপিএস) করোনাভাইরাস নিয়ে এক বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক সাংবাদিকদের জানান, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (৫ এপ্রিল সকাল ৮টা থেকে ৬ এপ্রিল সকাল ৮টা পর্যন্ত) করোনা ভাইরাসে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে নতুন করে আরও ২৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১৭ জনে দাঁড়িয়েছে। মোট মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ১৩ জন।

করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে আইইডিসিআর ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দেয়া তথ্যের উল্টোপাল্টা হওয়া নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘একটি বৈঠক চলার সময় তিনি (স্বাস্থ্যমন্ত্রী) ফোন করেছিলেন। আইইডিসিআর থেকে তাকে তথ্য দেয়া হয়েছিল। সেখানে একই নাম দুইবার দেখা হয়েছিল, আলাদা নামে। সে কারণেই মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে এ সমস্যা। আমরা এখন যে তথ্য দিয়েছি সেটাই সঠিক।’

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

করোনাভাইরাস
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close