• রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

তরুণীর গোপন ভিডিও প্রসঙ্গে যা বললো আড়ং

প্রকাশ:  ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০৩:২১ | আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০৩:৩৭
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর বনানীতে আড়ংয়ের এক শো-রুমের ট্রায়াল রুমে তরুণীর গোপন ভিডিও ধারণের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মীকে গ্রেফতার ও রিমান্ডের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে আড়ং। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এ ঘটনায় অভিযোগকারীকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছেন তারা। এছাড়া অভিযুক্ত তরুণকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে বলেও আড়ংয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

ঘটনা গেল ১১ জানুয়ারির। ওই দিন সিরাজুল ইসলাম সজীব নামের অভিযুক্ত যুবক অভিযোগকারী তরুণীর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে ট্রায়াল রুমে পোশাক পরিবর্তনের ভিডিও পাঠান। পরে তরুণীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করেন। প্রস্তাবে রাজি না হলে তার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেন।

১৬ জানুয়ারি ওই তরুণী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সজীবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ডিএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিট ২৫ জানুয়ারি সজীবকে গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের পর আড়ংয়ের চিফ অপারেটিং অফিসার আশরাফুল আলম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, সিরাজুল ইসলাম সজীবের বিরুদ্ধে বনানী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার ব্যাপারে আমরা অবহিত আছি এবং এই মামলাটি দায়ের করার ব্যাপারে অভিযোগকারীকে শুরু থেকেই সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করে আসছি।

তিনি আরও জানান, আড়ং যৌন হয়রানিমূলক যেকোনো কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে নীতিগতভাবে সর্বদা কঠোর অবস্থানে থাকে এবং এই ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িত আড়ং সংশ্লিষ্ট যেকোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে কঠোর হস্তে দমনের জন্য তৎক্ষণাৎ নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় বনানী আউটলেটের সাবেক বিক্রয় প্রতিনিধি সিরাজুল ইসলাম সজীবের বিরুদ্ধে গেল বছরের ডিসেম্বরে তার তৎকালীন এক সহকর্মী যৌন হয়রানিমূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ আনলে আভ্যন্তরীণ তদন্তের পর ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে সজীবকে তৎক্ষণাৎ চাকরিচ্যুত করা হয়।

বর্তমানে চলমান মামলাটির কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার নিমিত্তে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে আড়ংয়ের পক্ষ থেকে সার্বিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

আড়ং
  • আরও পড়তে ক্লিক করুন:
  • আড়ং
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close