• মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭
  • ||

পাসপোর্টের যে চাহিদা, আমরা সেটা পূরণ করতে পারছি না

প্রকাশ:  ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:০৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফাইল ছবি

সংকট মোকাবেলায় সরকার ২০ লাখ পাসপোর্ট কিনছে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, এখন যে পরিমাণ পাসপোর্টের চাহিদা রয়েছে, আমরা সেটা পূরণ করতে পারছি না। সারা বিশ্বে আমাদের যে অ্যাম্বাসি রয়েছে তাদের একটাই দাবি, তারা সময়মতো পাসপোর্ট পাচ্ছে না বা কম পাচ্ছে। আমরা যেভাবে হিসাব করেছিলাম, পাসপোর্ট যারা তৈরি করে তারা সেভাবে দিতে পারেনি। সেজন্যই আমাদের একটা গ্যাপ সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এটিসহ মোট পাঁচটি প্রস্তাব অনুমোদন হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয় ৩ হাজার ৬৯৮ কোটি টাকা।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমান পাসপোর্ট চাহিদা ও সরবরাহের মধ্যে একটি বড় ব্যবধান তৈরি হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দূতাবাসগুলো থেকে পাসপোর্টের চাহিদা আসছে। সংকট মোকাবেলায় ২০ লাখ পাসপোর্ট কেনা হচ্ছে। ই-পাসপোর্ট চালু না হওয়া মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট ব্যবহার করা হবে। সারা বিশ্বে এর গ্রহণযোগ্যতা আছে। আইডি গ্লোবাল সলিউশন লিমিটেডের কাছ থেকে এসব বই ক্রয় করা হবে।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, খুব অল্প সময়ের মধ্যে ই-পাসপোর্ট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের পাশাপাশি ই-পাসপোর্টের দিকে যাওয়া হবে। তিনি বলেন, আমরা দ্রুত চাহিদা মেটাতে পুরোনো প্রতিষ্ঠান আইডি গ্লোবাল সলিউশন লিমিটেডের কাছ থেকে ২০ লাখ মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) কিনছি। এতে খরচ হবে ৫৩ কোটি ৪ লাখ ৫৫ হাজার ২৫৭ টাকা। আমাদের পাসপোর্ট আরও প্রয়োজন। কিন্তু দ্রুত চাহিদা মেটাতে আমরা ২০ লাখ কিনছি। পাশাপাশি আমরা ই-পাসপোর্টে যাওয়ার চেষ্টায় রয়েছি।

উল্লেখ্য, এর আগে কয়েক দফা ই-পাসপোর্ট চালুর ঘোষণা দেয়া হলেও তা চালু করা সম্ভব হয়নি।


পূর্বপশ্চিমবিডি/ওআর

অর্থমন্ত্রী,পাসপোর্ট,আ হ ম মোস্তফা কামাল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close