• সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬
  • ||

অপরাধের প্রমাণ পাওয়ায় তুরিন আফরোজকে অপসারণ: আইনমন্ত্রী

প্রকাশ:  ১১ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৮ | আপডেট : ১১ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:০১
নিজস্ব প্রতিবেদক

অপরাধের প্রমাণ পাওয়ায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজকে অপসারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

সোমবার (১০ নভেম্বর) সচিবালয়ে আইনমন্ত্রী তার নিজ দফতরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।

আইনমন্ত্রী বলেন, তুরিন আফরোজ অপরাধীর সঙ্গে যে কথা বলেছেন তার রেকর্ড আমাদের কাছে আছে। রেকর্ডটি আমরা যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গে পর্যালোচনা ও পর্যবেক্ষণ করেছি। এ কাজ করতে গিয়ে তার সঙ্গে যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু কথা বলেছি। সেখানে সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে তার গলার কণ্ঠস্বর প্রমাণিত হওয়ায় আমরা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি বলেন, আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলছি তার (তুরিন আফরোজ) কাজে আমরা সন্তুষ্ট। তাকে আমরা যে দায়িত্ব দিয়েছি নিষ্ঠার সঙ্গে তিনি তা পালন করেছেন। সেগুলো নিয়ে আমাদের কোনো প্রশ্ন নেই। কিন্তু তিনি কেন যে এই কাজটি করতে গেলেন, এটা দুঃখজনক। আমরা যে তাকে খুশি মনে অপসারণ করেছি তা কিন্তু নয়। যে মামলা নিয়ে আসামির সঙ্গে তিনি কথা বলেছিলেন সেই মামলাটির এখন চার্জ গঠন করা হচ্ছে। এজন্য ওই পদ থেকে তাকে অপসারণ করেছি।

তুরিন আফরোজকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়েছিল কিনা জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী বলেন, যে রেকর্ড আমরা পেয়েছিলামে তাতে যে কণ্ঠ শোনা গেছে আমরা নিশ্চিত এটা তুরিনেরই কণ্ঠ। তারপরও যতটুকু প্রয়োজন হয়েছে তার সঙ্গে কথা বলেছি। সাক্ষীদের সঙ্গেও কথা বলেছি।

উল্লেখ্য, পেশাগত অসদাচরণ, শৃঙ্খলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে অপসারণ করা হয়।

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন শাখা থেকে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। এরপর তাকে মন্ত্রণালয় থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।


পূর্বপশ্চিমবিডি/এস.খান/ওআর

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক,ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানা,প্রসিকিউটর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত