• রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

ট্রাফিকের পুরোনো আইন বনাম নতুন আইন

প্রকাশ:  ০১ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:৩৬ | আপডেট : ০১ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৪৪
নিজস্ব প্রতিবেদক

সারাদেশে ১ নভেম্বর (শুক্রবার) থেকে কার্যকর হলো আলোচিত ‘সড়ক পরিহন আইন ২০১৮’। নতুন আইনে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালালে ১০ হাজার টাকা ও ড্রাইভিং লাইসেন্স না ছয় মাসের জেল বা অনধিক ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধার রয়েছে। যা পূর্বের আইনের তুলনায় মাত্রাতিরিক্ত বেশি বলেই মনে করছেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা।

নিম্মে নতুন ও পুরোনো আইনে শাস্তি ও জরিমানার বিষয়গুলো তুলে ধরা হলো-

১. নতুন সড়ক পরিবহন আইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা বা ৬ মাসের জেল। যা আগে ছিলো সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা জরিমানা বা চার মাসের জেল।

২. নতুন আইনে ভুয়া লাইসেন্সের জন্য ১-৫ লাখ টাকা জরিমানা বা ৬ মাস থেকে দুই বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। পুরোনো আইনে এটা ছিলো ৫০০ টাকা জরিমানা বা চার মাসের জেল।

৩. নতুন আইন অনুযায়ী রেজিষ্ট্রেশনবিহীন গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বা ৬ মাসের জেল। যা আগে ছিলো সর্বোচ্চ দুই হাজার টাকা বা তিন মাসের জেল।

৪. লেন ভঙ্গ ও হেলমেট ব্যবহার না করায় নতুন আইনে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। যা পুরোনো আইনে ছিলো মাত্র ২০০ টাকা।

৫. নতুন আইনে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালানোয় ছয় মাসের জেল বা ২৫ হাজার টাকা বা উভয় দন্ড। যা আগে ছিলো সর্বোচ্চ ২০০০ টাকা তিন মাসের জেল।

৬. ট্রাফিক আইন অমান্য বা অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালালে নতুন আইন অনুযায়ী সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। যা আগে ছিলো যথাক্রমে ২০০ এবং ৩০০ টাকা।

৭. নতুন আইনে অবৈধ পার্কিং এর জরিমানা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা। যা আগে ছিলো ২০০ টাকা।

৮. গাড়ি চালানোর সময় সিটবেল্ট না বাঁধলে বা ফোনে কথা বললে জরিমানা ধরা হয়েছে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা। যা পুরোনো আইনে ছিলো ২০০ টাকা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এস.খান

সড়ক পরিবহন আইন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close