Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

আবরার হত্যা

এজাহারে নাম না থাকলেও সংশ্লিষ্টতায় তিনজনকে গ্রেফতার

প্রকাশ:  ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এজাহারে নাম না থাকলেও প্রাথমিক তদন্তে সংশ্লিষ্টতা থাকায় তিনজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।

মনিরুল ইসলাম বলেন, এজাহার দায়েরের আগেই মোট ১০ জনকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। পরদিন ওই ১০ জনকে আদালতে হাজির করে আমরা পাঁচদিন করে রিমান্ড পেয়েছি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। পাশাপাশি এজাহারের পর আমরা আমাদের তৎপরতা অব্যাহত রেখেছি। ফলে এজাহার দায়েরের পর আরও পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

যে তিনজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে তারা হলেন বুয়েট ছাত্রলীগ নেতা অমিত সাহা, আবরারের রুমমেট মিজানুর রহমান মিজান এবং শামসুল আরেফিন রাফাত।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, এজাহারে প্রাথমিকভাবে যাদের নাম এসেছে আবরার ফাহাদের বাবা তাদের নাম উল্লেখ করেছেন এবং অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনের কথা বলেছেন। তারই সূত্র ধরে এজাহারে নাম নেই কিন্তু অন্যান্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বা বিভিন্ন তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় আরও তিনজনকে গ্রেফতার করেছি। এ তিনজনের নাম এজাহারে না থাকার পরেও প্রাথমিক তদন্তে সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি আসায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

এর আগে সকালে ঢাকার সবুজবাগ থেকে আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা অমিত সাহাকে আটক করে পুলিশ। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আবরারের রুমমেট মিজানকে বুয়েটের শেরে-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর রুম থেকে তুলে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ। আটক মিজান বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াটার রিসোর্চ অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

আবরার ফাহাদ,হত্যা,গ্রেফতার
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত