Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

‘অস্বাভাবিক দামে পণ্য কেনার বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীর নজরে’

প্রকাশ:  ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পে বিভিন্ন পণ্য অস্বাভাবিক দামে কেনার বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে আছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মতিঝিলের একটি অভিজাত হোটেলে ‘বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, শীতলক্ষা ও বালু নদীর উচ্ছেদকৃত তীরভূমিতে পিলার স্থাপন, তীররক্ষা, ওয়াকওয়ে ও জেটিসহ আনুষঙ্গিক অবকাঠামো নির্মাণ (দ্বিতীয় পর্যায়)’ শীর্ষক প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে আয়োজিত কর্মশালায় যোগ দিয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পে বেশি দামে পণ্য কেনার বিষয়টি আলোচনায় আসে।

এম এ মান্নান বলেন, প্রকল্পে আপনি চেয়ার, টেবিল, চাবি যাই কিনুন না কেন, মূল্য সম্পর্কে আপনাকে সাবধান হতে হবে। কারণ গণমাধ্যমে বালিশের দাম, পর্দার দাম, কী সব! প্রধানমন্ত্রীর নজরে এসব আছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, প্রতিটি আইটেম আপনি দেখবেন বসে বসে। গাড়ির ব্যবহার, আমাদের চেলাফেরা– প্রতিটি বিষয়ে আমাদেরকে নতুন ধরনের আচরণ নিয়ে কাজ করতে হবে। জনগণের প্রতিটি পয়সা আমাদেরকে হিসাব করে খরচ করতে হবে। এখানে কোনও আপোস করা হবে না।

বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, শীতলক্ষা ও বালু নদীর উচ্ছেদকৃত তীরভূমিতে পিলার স্থাপন, তীররক্ষা, ওয়াকওয়ে ও জেটিসহ আনুষঙ্গিক অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্পেও প্রতিটি পণ্য যথাযথ মূল্যে কেনা হবে বলে প্রত্যাশা করেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

তিনি বলেন, নদী মায়ের মতো আমাদেরকে গড়ে তুলেছে। সে নদী যে আক্রমণের মুখে পড়েছে, এটা অবশ্য সত্য। আমরা যারা এই নদীর সন্তান, আমাদের দায়িত্ব নদীকে রক্ষা করা। সরকারের আইনি দায়িত্ব, এই নদীগুলোকে রক্ষা করা। সেটা সরকার দেখছে।

কৃষক, মজুরদের প্রকল্প আগে নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে এম এ মান্নান বলেন, আমাদের এখানে প্রকল্প আসলে বাছাই করা হয়। কোনগুলো মানুষের কল্যাণে, সেগুলো টেনে নিয়ে আসুন আগে। কোনগুলো সাধারণ মানুষের কল্যাণে, কৃষকের কল্যাণে, মজুরের কল্যাণে; তাদেরটা আগে নিয়ে আসুন। ছোটখাটো ত্রুটি থাকলে তা উড়িয়ে দিয়ে এগুলোকে পাস করিয়ে দেন। কারণ প্রধানমন্ত্রী উন্মুখ হয়ে আছেন, এই ধরনের প্রকল্প পাস করার জন্য।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত