Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

ওলিওতে হামলা: ১৪ জনের নামে চার্জশিট

প্রকাশ:  ১১ আগস্ট ২০১৯, ১৫:০৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

২০১৭ সালের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের র‌্যালিতে হামলার উদ্দেশে রাজধানীর পান্থপথে হোটেল ওলিওতে সন্ত্রাসী হামলার মামলায় ১৫ জনের সম্পৃক্ততা পেয়েছে ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি) বিভাগ।

ঘটনার দুই বছর তদন্ত শেষে রোববার (১১ আগস্ট) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ঘটনার সাথে ১৫ জনের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে।

তারা হলেন- আকরাম হোসেন খান নিলয়, তানভীর ইয়াসীন কবির, আবু তুরাব খান, সাদিয়া হোসনা লাকি, হুমায়রা জাকির নাবিলা, তাজরীন খানম শুভ, আব্দুল্লাহ আয়চান কবিরাজ, আবুল কাশেম ফকির, লুলু সরদার ওরফে শহিদ মিস্ত্রি, তাজুল ইসলাম ছোটন, নাজমুল হাসান মামুন, নব মুসলিম আব্দুল্লাহ, কামরুল ইসলাম শাকিল, তারেক মো. আদনান ও সাইফুল ইসলাম।

মনিরুল ইসলাম বলেন, হামলাকারী সকলেই নব্য জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য। এদের মধ্যে সিটিটিসির অভিযানের সময় আত্মঘাতি হয়ে মারা গেছেন বোমা হামলাকারী সাইফুল ইসলাম। তাই বাকি ১৪ জনের নামে আমাদের চার্জশিট চুড়ান্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত জীবিত ১৪ জনকেই গ্রেফতার করেছে সিটিটিসি। এদের মধ্যে ১০ জন ফৌজদারী কার্যবিধি ১৬৪ ধারা মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন। তাদের কাজের দায়দায়িত্ব ও প্রাপ্ত সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে তদন্ত শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিলের জন্য সরকারের পূর্ব অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান বলেন, ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী অর্থাৎ মাস্টারমাইন্ড আকরাম হোসেন খান নিলয়, অর্থ সরবরাহকারী তানভীর ইয়াসীন কবির, আবু তুরাব খান, সাদিয়া হোসনা লাকি, হুমায়রা জাকির নাবিলা ও তাজরীন খানম শুভ। ওই ঘটনায় বোমা সরঞ্জাম সরবরাহ করে আবুল কাশেম ফকির, লুলু সরদার ওরফে শহিদ মিস্ত্রি, তাজুল ইসলাম ছোটন। ঢাকার একটি আস্তানায় বোমা প্রস্তুত করেছিলো নাজমুল হাসান মামুন। আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী ছিলেন সাইফুল ইসলাম, যিনি ঘটনার সময় আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত। আর ওই ঘটনায় আশ্রয়দাতা ও সহায়তাকারী নব মুসলিম আব্দুল্লাহ, কামরুল ইসলাম শাকিল, তারেক মোঃ আদনান ও আব্দুল্লাহ আয়চান কবিরাজ।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ১৫ আগস্ট রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের অদূরে পান্থপথে হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালের ভবনে জঙ্গিরা আশ্রয় নেয়ার খবরে অভিযান চালায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ওই অভিযানে সাইফুল নামে এক জঙ্গি আত্মঘাতী হামলায় মারা যান।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

ওলিওতে হামলা,সিটিটিসি,কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট,প্রধান,অতিরিক্ত কমিশনার,মনিরুল ইসলাম
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত