• বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

দুদক পরিচালক বাছির আগেও বরখাস্ত হয়েছিলেন

প্রকাশ:  ১২ জুন ২০১৯, ১৭:০৬
নিজস্ব প্রতিবেদক

শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও তদন্তাধীন তথ্য পাচারের অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির এর আগেও বরখাস্ত হয়েছিলেন। তখন তিনি ৪০ মাসের জন্য বরখাস্ত হয়েছিলেন। সেই শাস্তি ভোগের পর তিনি পুনর্বহাল হন, পান পদোন্নতি।

আগে বরখাস্ত হওয়ার কথা স্বীকার করে এনামুল বাছির বলেন, দুর্নীতি দমন ব্যুরো থেকে যখন দুর্নীতি দমন কমিশন হলো, তখন ৪০ মাস চাকরি ছিল না। ব্যুরো আমলে আমি একটা মামলা তদন্ত করেছিলাম, তাতে ৩৫০ কোটি টাকা রিকভার হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন, সেই সময়ে বিবাদী পক্ষ ব্যুরোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সর্বনিম্ন পর্যায় পর্যন্ত কিনে ফেলে। তারা আমাকে ঘরে পর্যন্ত ঘুমাতে দেয়নি। কিছু দিন পর পর আমার কর্মস্থলও পরিবর্তন করা হতো। যখন কমিশন হয় তখন আমাকে অবহেলা করা হয়েছিল। আমার কাছে এবারের অভিযোগ নতুন কিছু না।

উল্লেখ্য, শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও তদন্তাধীন তথ্য পাচারের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সোমবার (১০ জুন) সাময়িক বরখাস্ত করে কমিশন।

পিপিবিডি/এসএম

দুদক
  • আরও পড়তে ক্লিক করুন:
  • দুদক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close