Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
  • ||

রোজায় শাহরিয়ারের আলোচিত ৭ অভিযান

প্রকাশ:  ০৪ জুন ২০১৯, ২০:৩০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

আড়ংকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করার পর বদলির আদেশ পেয়ে আলোচনায় আসেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। পরে অবশ্য তার বদলির আদেশ স্থগিত করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। শুধু আড়ং নয়, পুরো রমজান মাসুজুড়ে বিভিন্ন অভিযোগে নামি-দামি একাধিক প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছেন শাহরিয়ার। এর মধ্যে কয়েকটি বেশ আলোচনায় চলে আসে।

হাইকোর্টের আদেশে নিষিদ্ধ হওয়া ৫২টি পন্যের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছিলেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। মে মাসে ঢাকার একাধিক বাজার ও দোকানে এই অভিযান চলে। এরমধ্যে ১৮ মে কাওরান বাজার, ধানমন্ডি ও নিউমার্কেট এলাকার বেশ কয়েকটি দোকানে এসব পণ্য পাওয়া গেলে সেগুলোকে জরিমানা করা হয়। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের এমন অভিযানের প্রশংসা করে খোদ হাইকোর্ট।

শাহরিয়ারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অধিদপ্তরের বেশ কয়েকটি বাজার মনিটরিং টিম আন্তঃজেলা বাসগুলোতে অভিযান পরিচালনা করে। এগুলোর কয়েকটিতে সরাসরি উপস্থিত থেকে নেতৃত্ব দেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। এরমধ্যে একটি গত ২২ মে মহাখালী এবং কল্যাণপুর বাস টার্মিনালের অভিযান। সে অভিযানে ঢাকা থেকে দেশের বিভিন্ন জেলার রুটে ছেড়ে যাওয়া পাঁচটি পরিবহন কোম্পানিকে বিভিন্ন অংকে মোট দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। টিকিটের মূল্য তালিকা প্রদর্শিত অবস্থায় না রাখা, নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়, গ্রাহকদের কাঙ্ক্ষিত সেবা না দেওয়ার মতো অপরাধে এই জরিমানা করা হয়।

রাজধানীর চকবাজারে তৈরি নিম্নমানের পণ্য বিদেশি মোড়কে জড়িয়ে উচ্চদামে বিক্রির দায়ে গত ২৬ মে পিংক সিটি শপিং মলের ২৬টি দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে মোট তিন লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের টিম।

এছাড়া গত ২৭ মে রাজধানীর টোকিও স্কয়ারে ক্যাফে এক্সপ্রেস নামে একটি রেস্টুরেন্টে পচা-বাসি খাবার বিক্রি হতে দেখেন অভিযানে অংশ নেওয়া কর্মকর্তা। স্বনামধন্য একটি রেস্টুরেন্টের এমন অপরাধ দেখে হতবাক হন তারাও। পরে প্রতিষ্ঠানটিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। নিম্নমানের কসমেটিক্স পণ্য ও সেগুলো আমদানির স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ ও পণ্যগুলোর মেয়াদ সম্বলিত কোনো লেবেল না থাকায় গত ২৯ মে বিডি বাজেট বিউটি শপের একটি শাখাকে সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়। এই অভিযানেরও নেতৃত্বে ছিলেন শাহরিয়ার। এছাড়া স্বনামধন্য বিউটিশিয়ান কানিজ আলমাস মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান পারসোনাকে জরিমানা করার মাধ্যমে নতুন করে আলোচনায় আসেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার ও তার দল। বিদেশি কসমেটিক্স তকমা দিয়েও আমদানিকারকের স্টিকার না থাকায় পারসোনার দু’টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

সর্বশেষ সোমবার (৩ জুন) মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নেতৃত্বে একটি বাজার মনিটরিং টিম একই পণ্য প্রায় দ্বিগুণ দামে বিক্রির অভিযোগে রাজধানীর উত্তরায় আড়ংয়ের একটি শাখাকে চার লাখ টাকা জরিমানা করলে বিষয়টি রাতারাতি ‘টক অব দ্য টাউন’ এ পরিণত হয়। জরিমানার কয়েক ঘণ্টার মাথায় এই কর্মকর্তার বদলি আদেশ জারি করা হলে বিষয়টি পরিণত হয় ‘টক অব দ্য নেশন’-এ। অবশ্য মঙ্গলবার (৪ জুন) সেই বদলি আদেশ বাতিল করে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়।

পিপিবিডি/এস.খান

শাহরিয়ার,মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার,আড়ং
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত