Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬
  • ||

সাত দশকেও ফিলিস্তিনিদের অধিকার পুরনে ব্যার্থ ওআইসি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:  ০২ জুন ২০১৯, ১৭:১৭ | আপডেট : ০২ জুন ২০১৯, ১৭:২৩
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon
ওআইসির সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি) যে লক্ষ্য নিয়ে গঠিত হয়েছিল, তা যে এখনো পূরণ হয়নি মুসলিম দেশগুলোকে সে কথা আবারো স্মরণ করিয়ে দিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (১ জুন) সৌদি আরবের মক্কার সাফা প্যালেসে ওআইসির চতুর্দশ সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যকালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের ফিলিস্তিনি ভাই ও বোনদের জমি ও সার্বভৌমত্বের অধিকার ফিরিয়ে আনতে, উম্মাহর মর্যাদা ও অধিকার রক্ষা এবং মুসলিম বিশ্বের জনগণের মধ্যে একাত্মতা ও সহযোগিতা জোরদার করার জন্য লক্ষ্যে ওআইসির জন্ম হয়েছিল। কিন্তু সাত দশক পরেও ফিলিস্তিনের সমস্যা এখনও বিদ্যমান এবং এ বিষয়ে মুসলিম উম্মাহ এখনও বিভক্ত।

শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান বিশ্বে রয়েছে অর্থনীতি, বাস্তুতন্ত্র ও নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জ। এসব মোকাবেলায় ওআইসিকে একটি বিস্তৃত কৌশল গড়ে তুলতে হবে, যার মধ্যে সদস্য রাষ্ট্রগুলো একে অন্যের জন্য কাজ করতে পারে।

তিনি বলেন, পৃথিবীর কৌশলগত সম্পদের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি এবং যুবশক্তির বেশিরভাগই রয়েছে আমাদের হাতে। আমাদের নিজেদের সমস্যা নিজেদেরেই সমাধান করার সমক্ষতা থাকা উচিত।

দরিদ্রকে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ অসঙ্গতি মোকাবেলার জন্য যৌথ ইসলামী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ওআইসি-২০২৫ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে হবে।

ওআইসির ইন্সটিটিউশনগুলোকে বিশেষ করে ইসলামিক উন্নয়ন ব্যাংকের নীতিমালা ও অনুশীলনগুলোকে ওআইসির এজেন্ডার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়ার ওপরও জোর দেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, পণ্য বাজারজাত ও পরিষেবায় ধারণা ও উদ্ভাবন আজ ইসলামী বিশ্বের প্রয়োজন।

এরআগে শুক্রবার (৩১ মে) রাতে শুরু হওয়া এই শীর্ষ সম্মেলনে অতিথিদের স্বাগত জানান সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। শেখ হাসিনা সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করলে বাদশাহ তাকে স্বাগত জানিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।


পিপিবিডি/কেএম

ওআইসি,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,সৌদি আরব
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত