Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
  • ||

‘আসছে ফণী, প্রস্তুত বাংলাদেশ’

প্রকাশ:  ০৪ মে ২০১৯, ০৯:৪১
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon
সজীব ওয়াজেদ জয়। ফাইল ছবি

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ দুর্বল হয়ে আজ সকাল ৬টার দিকে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট ও যশোর দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে। শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ শেষ পর্যন্ত গতিপথ ঠিক থাকলে রাজশাহী ও রংপুর দিয়ে বাংলাদেশ অতিক্রম করতে পারে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় নিজের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে দেয়া স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেছেন, ধেয়ে আসছে ফণী, প্রস্তুত বাংলাদেশ।

তিনি আরও উল্লেখ করেছেন, ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর এবং চট্টগ্রামকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

ফণী মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপ সমূহ উল্লেখ করে তিনি লেখেন, দেশের ১৯ উপকূলীয় জেলায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত। উপকূলীয় ১৯ জেলার মোট ৩,৮৬৮টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত, দেশের উপকূলীয় ১৯ জেলায় খোলা হয়েছে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ, সকল জেলা প্রশাসকদের ২০০ মেট্রিক টন চাল, ৪১ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার ও পাঁচ লাখ করে টাকা দেয়া হয়েছে।

ফণী’র প্রভাব মোকাবিলা ও জরুরি তথ্য আদান-প্রদানের কন্ট্রোল রুম নম্বর ০২৯৫৪৬০৭২ এর কথা উল্লেখ করে তিনি আরও লেখেন, ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতের শঙ্কায় সারাদেশে নৌ-চলাচল বন্ধ, প্রস্তুত নৌবাহিনীর ৩২টি জাহাজ, দুর্যোগ চলাকালীন বা পরবর্তী সময়ে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, ফণী'র পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিআইডাব্লিউটিএসহ সকল সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল।

সবশেষ তিনি সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন।

শনিবার (৪ মে) সকালে আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় ফণী ইতিমধ্যে দুর্বল হতে শুরু করেছে। ঝড়টি ইতিমধ্যে দিক পরিবর্তন করেছে। ফলে এটি উপকূলীয় অঞ্চল দিয়ে আঘাত হানবে না। ঘূর্ণিঝড়টি দেশের মধ্যাঞ্চল দিয়ে আঘাত হানার আশঙ্কা রয়েছে।

এটি বাংলাদেশে ৬ ঘণ্টা অবস্থান করতে পারে। এর পর এটি আবারও ভারতে প্রবেশ করবে। বাংলাদেশে অবস্থানের সময় এটির গতিবেগ থাকবে ৬২ থেকে ৮৮ কিলোমিটার।

এদিকে আবহাওয়া অথিতফতেরের এক বার্তায় বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টি তার দিক পরিবর্তন করেছে। এটি খুলনা, যশোর, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, নড়াইল, মেহেরপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী ও রংপুর হয়ে ভারত চলে যেতে পারে।

ফণীর আঘাতে বাংলাদেশের বিভিন্নস্থানে এখন পর্যন্ত ১৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে বলে জানা গেছে।


পিপিবিডি/এসএম

ঘুর্ণিঝড় ফণী,সজীব ওয়াজেদ জয়
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত