• শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

প্রবন্ধঃ পৃথিবী যখন মৃত্যুপূরী

প্রকাশ:  ১১ আগস্ট ২০২০, ১৫:২৩ | আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২০, ১৫:৩৩
মোঃ আশিকুর রহমান

পৃথিবীতে মানুষ শান্তিতে বসবাস করবে ,তার রূপরস মানুষ দেখবে এটাই স্বাভাবিক নিয়ম হওয়ার কথা ছিল! বর্তমানে আমরা কি দেখছি? মানুষ সবাই ঘর বন্দী। ঘুড়তে যাওয়াতো দূরের কথা মানুষ আজ নৃত্য প্রয়োজনেও বাসা থেকে বাইরে যেতে ভয় পাচ্ছে। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সবথেকে বেশি মানুষ মারা যায়। এরপরে বর্তমানে করোনা যুদ্ধে সারা পৃথিবীতে লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছে। তাই আমরা স্বাভাবিকভাবেই এই যুদ্ধকে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ হিসেবে ধরতে পারি। এই যুদ্ধে না আছে কোনো সৈন্য , না আছে কোনো মন্ত্রী, আর না আছে কোনো পাইক পেয়াদা। সবথেকে বড় বিষয় হলো এই যুদ্ধে শত্রকে দেখা যায় না, আসার কোনো পূর্বাভাসও পাওয়া যায় না! হঠাৎ করে আসে আর তিলে তিলে শেষ করে দেয় সবাইকে। চীনের উহান শহর থেকে এই যুদ্ধ প্রথম শুরু হয়। এটি এমন এক যুদ্ধ , যেই যুদ্ধে প্রায় পৃথিবীর সব দেশই অংশগ্রহন করছে। যুদ্ধের ইতিহাসেও তা সত্যিই বিরল। গাছ ছাড়া যেমন ফল পাওয়ার আশা বৃথা, তেমনি একমাত্র আল্লাহর অনুগ্রহ ছাড়া এই যুদ্ধে জয়লাভ করা অসম্ভব। সারা পৃথিবীতে ইতোমধ্যে লক্ষ লক্ষ মানুষ শহিদ হয়েছেন। আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে হানিমুন করছে আরও ২ কোটি মানুষেররও বেশি। তারা কি যুদ্ধে জয়ী হতে পারবে? নাকি পরাজয়ের মালা নিয়েই বিদায় নিবেন পৃথিবী থেকে? এর উত্তর পাওয়া বেশ মুশকিল। জানি অনেকেই এই যুদ্ধে রাজার চরিত্রে অভিনয় করে যাচ্ছে! তারা এমন ভাব ধরছে যেন কিছুই হয়নি ! তারা আগের মতই বাজার করছে , যেখানে খুশি সেখানে ঘুড়ে বেড়াচ্ছে। মাঝে মাঝে মনে হয় তারা কি এই পৃথিবীর প্রানী? নাকি অন্য কোনো গ্রহ থেকে পৃথিবীতে এসেছে বনভোজন করতে ? বৃক্ষের উপরে পানি ঢেলে শিকর কাটলে যেমন গাছ বাঁচা অসম্ভব, তেমনি অসচেতনভাবে চলাফেরা করে সরকার ও প্রশাসনকে দোষারোপ করেও করোনা থেকে বেঁচে থাকা অসম্ভব।

অক্সিজেন নিয়ে যারা ব্যবসা করছেন তারা কি রাতারাতি বড়লোক হয়ে যাবেন? নাকি পড়কালে স্বর্গের টিকিট নিশ্চিত করবেন আপনার সেই অর্জিত টাকা দিয়ে? আজ যেই অক্সিজেন নিয়ে ব্যবসা করে হাজার হাজার টাকা লোটে নিচ্ছেন, কার্বন ডাই-অক্সাইডের সিলিন্ডারে অক্সিজেন বিক্রি করে মানুষকে মৃত্যুর রাস্তায় একধাপ এগিয়ে দেওয়ার মতো জনসেবা করছেন কাল আপনার পরিবারের কেউ এমন সমস্যায় পরবে না তার গ্যারান্টি কি?

মাস্ক পরিধানে অনেকেই অনীহা করেন, তারা অবশ্য জীবনবৃক্ষকে বাচাঁতে চাই ঠিকই কিন্তু বৃক্ষে পানি ঢালতে চাই না! অনেকেই বলে থাকেন মাস্ক পড়লে নাকি দম বন্ধ হয়ে আসে, করোনা আপনাকে অতি মাত্রায় আক্রমণ করলে যে চিরদিনের জন্যই দম বন্ধ হয়ে যাবে সেই খেয়াল আপনার আছে?

জানি উত্তর মিলবে না তবু শুধু বলবো এখনও যদি সচেতন না হয়ে এভাবে যুদ্ধের ময়দানে ঘুড়ে বেরান, কাল আপনার নামটিও যে শহীদের খাতায় আসবে না তার নিশ্চয়তা কি? তাই এখনই সময় সচেতন হওয়ার, না হলে সব কষ্টই হবে ফক্কিকার। পৃথিবী হয়ে উঠবে মৃত্যুপূরী!

মোঃ আশিকুর রহমান গণ বিশ্ববিদ্যালয়


পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

প্রবন্ধ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close