• সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

সাদাকে সাদা, কালোকে বলতে হবে কালো

প্রকাশ:  ১৩ মে ২০১৯, ১৬:৪৫ | আপডেট : ১৩ মে ২০১৯, ১৮:২১
আনিসুর রহমান

গণমাধ্যমের অবস্থা যখন টালমাটাল, টিভি-পত্রিকাগুলো আশানুরূপ চাহিদা মেটাতে না পারায় মানুষ যখন এসব থেকে মুখ ফিরিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া ও ইউটিউবে সময় কাটাচ্ছে, এছাড়া পত্রিকা বন্ধ হয়ে যাওয়া, ছাঁটাই, মাসের পর মাস বেতন বকেয়া খুব স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে, তখন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম ফেসবুক স্ট্যাটাসে গণমাধ্যমের ভবিষ্যৎ নিয়ে তার ভাবনা ও কিছু পরামর্শ তুলে ধরেছেন। স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

“আগামী দিনের মিডিয়া কিভাবে টিকে থাকবে? আমার লেখার জবাবে সবার মতামতগুলো মনোযোগ দিয়ে পড়েছি। মিডিয়া চালাতে গিয়ে এই মতামত আমার কাজে লাগবে। তবে একটি বিষয় সবাই স্পষ্ট করেছেন- শুধু সামাজিক গণমাধ্যমকে দোষারোপ করে লাভ হবেনা। মেইনস্ট্রিম মিডিয়াকে বাস্তবতায় ফিরে আসতে হবে। যা কিছু সংবাদ তুলে ধরতে হবে নির্ভিকভাবে। কোনো পক্ষপাতে যাওয়া যাবে না। সাদাকে সাদা, কালোকে বলতে হবে কালো।”

সম্পর্কিত খবর

    স্ট্যাটাসে জাহানারা পারভীন নামে একজন মন্তব্য করেছেন, ‌“সাদাকে সাদা কালোকে কালো বলতে হলে সৎ সাহস দরকার। আর প্রলোভন এড়িয়ে চলার মতো মনোবল। এসব কি এখনও আমাদের মাঝে আছে ?”

    তাপসী রাবেয়া আঁখি নামের একজন মন্তব্য করেছেন,‌ ‌‌“সাংবাদিক নেতা বা গুরুজন বা মিডিয়া ব্যক্তিত্ব খ্যাত বড়ভাইদের আগে শোধরাতে হবে, ব্যক্তিশত্রুতা পোষণনীতি, ইউনিয়ন রাজনীতি, ক্লাব রাজনীতির নামে অপেশাদারিত্ব ও গ্রুপবাজিও বন্ধ করতে হবে । দলবাজি, রাজনীতিকানা আচরণ বন্ধ না হলে কিভাবে আগামী দিনের মিডিয়া চলবে তা ভাবার বিষয় এখন।”

    সঙ্গীতশিল্পী আসিফ আকবর মন্তব্য করেছেন, Already too late, জবাবে নঈম নিজাম লিখেছেন, ‘better late then never’।

    এর আগে গত ৯ মে নঈম নিজাম তার ফেসবুক পেজে গণমাধ্যম নিয়ে আরেকটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, “মানুষ মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে সংবাদপত্র ও টিভি থেকে, কিন্তুু কেন? সময় এসেছে মিডিয়াকর্মীদের আত্মজিজ্ঞাসার। শুধুমাত্র সামাজিক গণমাধ্যমকে গড়ে দোষারোপ না করে আসুন সবাই মিলে বাস্তবতাকে অনুধাবন করি। সকল প্রশ্নের উত্তর খুঁজে নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব সবার আগে সম্পন্ন করি। কাজ না করে হা-হুতাস করে, অপরের উপর দোষ চাপিয়ে লাভ হবে না। বিশ্ব বাস্তবতাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েই এগিয়ে যেতে হবে। সময় এখনো ফুরিয়ে যায়নি। পেশাদারিত্ব নিয়েই টিকে থাকতে হবে মিডিয়াতে।”

    এছাড়া ৮ মে অপর একটি স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, “মিডিয়া টিকিয়ে রাখতে পেশাদার কর্মী হতে হবে। শ্রমিক লীগ, শ্রমিক দল হয়ে মিডিয়া টিকবে না। সমর্থন থাকতেই পারে, অস্তিত্ব বিলীন হলে পেশাও শেষ হয়ে যায়। বড় বড় কথা বলে লাভ নেই। বাস্তবতায় আসুন। শুধু নিউ মিডিয়াকে দোষ দিয়ে লাভ নেই।(আমার এই কথা কারও পছন্দ হবে না)।”

    পিপিবিডি/এআর

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close