• রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

আঞ্চলিক সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে বাণিজ্য চুক্তির ওপর গুরুত্ব পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ:  ২৪ নভেম্বর ২০২২, ২৩:১২
নিজস্ব প্রতিবেদক

পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

আন্তঃআইওআরএ বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে ভারত মহাসাগর অঞ্চলের রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে একটি আঞ্চলিক বাণিজ্য চুক্তি করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেন, একটি আঞ্চলিক বাণিজ্য চুক্তি এবং আন্তঃআইওআরএ বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাধা দূরীকরণের মাধ্যমে আইওআরএ সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করা এখন আগের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ঢাকায় ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) কাউন্সিল অব মিনিস্টার্সের ২২তম বৈঠকে ড. এ কে আব্দুল মোমেন এ কথা বলেন।

উল্লেখ্য, ২৩টি সদস্য রাষ্ট্র ও ১০টি সংলাপ অংশীদারের সমন্বয়ে গঠিত আন্তঃসরকার সংগঠনটির বর্তমান চেয়ার বাংলাদেশ ।

মোমেন বলেন, বর্তমানে আন্তঃআইওআরএ বাণিজ্য অনুপাত ৩৫ শতাংশ, যা ইউরোপের অনুরূপ মাত্রার চেয়ে উল্লেখযোগ্যভাবে কম। ইউরোপে বাণিজ্যের এই হার ৬০ শতাংশ এবং উত্তর আমেরিকায় প্রায় ৪০ শতাংশ।

মন্ত্রী বলেন, দ্বিধাহীন ভাবেই আমি বলতে পারি যে, বাণিজ্য ও বিনিয়োগের ব্যাপক সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও দুই দশকেরও বেশি সময় পর আইওআরএ সদস্য রাষ্ট্রগুলোর বাজারের যে সম্ভাবনা রয়েছে- তা সর্ম্পূণভাবে কাজে লাগানো হয়নি।

তিনি বলেন, আইওআরএ টেকসই সংলাপ ও সহযোগিতার মধ্য দিয়ে ভারত মহাসাগরের উপকূলবর্তী দেশগুলোর একটি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সংগঠন হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে এবং এখন এটি এই অঞ্চলের উন্নয়ন, শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিতে প্রধান চালিকাশক্তি।

মোমেন বলেন, যদিও, আমরা আইওআরএ’কে এই অঞ্চলের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্লাটফরমে পরিণত করতে এখনো আমাদের সুপ্ত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে পারিনি। বাংলাদেশ সবসময়ই এই অঞ্চলের জনগণের কল্যাণের জন্য প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ও আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চেয়ার হিসেবে, আইওআরএ’র কাঠামোকে আরো শক্তিশালী করতে সংগঠনটির সকল প্লাটফরমে কাজ করাকে আমাদের একান্ত কর্তব্য বলে মনে করি।

ঢাকা এই সভার আয়োজন করেছে। ১৬টি সদস্য দেশের মন্ত্রী পর্যায়ের প্রতিনিধি এতে যোগ দিয়েছেন। দেশগুলো হলো- স্বাগতিক বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, কোমোরোস, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, মাদাগাসকার, মালদ্বীপ, মৌরিতিয়াস, মোজাম্বিক, সোমালিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলংকা, তানজানিয়া, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) ও ইয়েমেন এবং একটি সংলাপ অংশীদার দেশ জাপান। এছাড়াও অন্যান্য সদস্য রাষ্ট্রের উচ্চ-পর্যায়ের প্রতিনিধিদল এই সভায় যোগ দিয়েছেন।

দেশগুলো হলো- ফ্রান্স, ইরান, কেনিয়া, ওমান, মালয়েশিয়া, সিসিলি ও সিঙ্গাপুর। এই সিওএম-এ যোগদানকারী সংলাপ অংশীদার দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে- চীন, মিসর, জার্মানি, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া, রাশিয়া, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। খবর বাসস এর।

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

পররাষ্ট্রমন্ত্রী,চুক্তি,বাণিজ্য,আঞ্চলিক
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close