• বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
  • ||

৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার কিনছে সরকার

প্রকাশ:  ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:১৪
নিজস্ব প্রতিবেদক

সৌদি আরব, কাতার ও দেশীয় এক প্রতিষ্ঠান কাফকো থেকে ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা। এতে মোট খরচ হবে ৫৯৮ কোটি ৫৭ লাখ ৫৪ হাজার ৭৪০ টাকা। এর পাশাপাশি ২৩৩ কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার টাকায় ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক অ্যাসিড কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ভার্চুয়ালি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ প্রস্তাবগুলোর অনুমোদন দেওয়া হয়।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আবদুল বারিক সাংবাদিকদের অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরে বলেন, সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৯তম সভায় অনুমোদনের জন্য ৯টি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়েছে। ক্রয় প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের চারটি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের দুটি, বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের একটি, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের একটি এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ছয়টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১ হাজার ২৭ কোটি ৯৯ লাখ ৫৫ হাজার ২১৬ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ব্যয় হবে ৩৭৮ কোটি ১৮ লাখ ৭৭ হাজার ৪৪৭ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক ও বৈদেশিক ঋণ ৬৪৯ কোটি ৮০ লাখ ৭৭ হাজার ৭৬৯ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব মো. আবদুল বারিক বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন-বিসিআইসি কর্তৃক কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানির কাছ থেকে ৬ষ্ঠ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯৭ কোটি ৪৬ লাখ ৬৩ হাজার ৭৫০ টাকায় কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অপর এক প্রস্তাবে বিসিআইসি কর্তৃক কাতারের মুনাজাত থেকে ৬ষ্ঠ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ২০০ কোটি ৫৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বিসিআইসি কর্তৃক সৌদি আরবের সাবিক এগ্রি-নিউট্রেয়নস কোম্পানি, সৌদি আরব থেকে ৯ম লটে ৩০ হাজার টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ২০০ কোটি ৫৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বিসিআইসি কর্তৃক ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড-ডিএপিএফসিএলের জন্য ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক এসিড ২৩৩ কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক “ঢাকাস্থ মোহাম্মদপুর হাউজিং এস্টেটের আসাদ অ্যাভিনিউতে (গৃহায়ন কনকচাপ) কম্পাউন্ডে তিনটি ১৪ তলা আবাসিক ভবন নির্মাণকাজ দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস লিমিডেটের কাছ থেকে ১৪৪ কোটি ৩৬ লাখ ৪৭ হাজার ৪৪৭ টাকায় কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন (আইএমইডি) বিভাগের অধীন সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) কর্তৃক ই-জিপি সিস্টেমের উন্নয়ন এবং পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ডিজিটাইজিং বাস্তবায়ন মনিটরিং এবং পাবলিক প্রকিউরমেন্ট প্রকল্পের প্যাকেজের (এএফএস-২) আওতায় পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিয়েছে সরকার। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো--বাংলাদেশের দোহাটেক মিডিয়া এবং ভারতের জিএসএস ইনফোটেক লিমিটেড। এতে মোট খরচ হবে ৫১ কোটি ২৩ লাখ ২৩ হাজার ২৯ টাকা।

৯০ হাজার টন,ইউরিয়া,সার,সরকার
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close