• বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮
  • ||

নতুন ঠিকানায় নতুন রূপে বাণিজ্য মেলা

প্রকাশ:  ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০৫ | আপডেট : ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনার কারণে ২০২১ সালে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আয়োজন হয়নি। এবার পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে নতুন ঠিকানায় শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী বাণিজ্য মেলা। রাজধানীর পূর্বাঞ্চলের বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে আগামী ১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন করবেন। প্রতিবারের মতো মেলা আয়োজনে থাকছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)।

এবারের বাণিজ্য মেলায় ছোট-বড় মিলে ২২৫টি স্টলে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্যের পসরা নিয়ে হাজির হবেন। আগের মতো খোলা আকাশের নিচে এবারের মেলা হচ্ছে না। প্রদর্শনী কেন্দ্রের স্থায়ী অবকাঠামোর ভেতরে ও বাইরে মিলিয়ে এবারের মেলা সাজানো হয়েছে।এক্সিবিশন সেন্টারের ভেতরে ও বাইরে বেশ ফাঁকা রেখে স্টলগুলো সাজানো হয়েছে । এতে করে দর্শনার্থীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ঘুরে বেড়াতে পারবেন।

এবারও প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন, প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন, জেনারেল স্টল, ফুডকোট, মিনি স্টল, প্রিমিয়ার স্টলসহ ৩২টি ক্যাটাগরি রয়েছে। মিলনায়তনের ভেতরে নিজস্ব একটা ক্যাফেটরিয়া রয়েছে। একসঙ্গে ৫০০ লোক বসে খাবার খেতে পারবে। মেলায় প্রাণ-আরএফএল, যমুনা, আবুল খায়ের, এ্যাপেক্সসহ দেশের বড় বড় প্রতিষ্ঠান স্টল বরাদ্দ নিয়েছে। এ ছাড়া ভারত, তুরস্ক, থাইল্যান্ড, চীনসহ ৮ দেশের একাধিক প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশগ্রহণ করছে। মেলায় প্রবেশ মূল্য রাখা হচ্ছে শিশুদের জন্য ২০ টাকা আর বড়দের জন্য ৪০ টাকা।

চলতি বছরের বাণিজ্য মেলা প্রসঙ্গে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সচিব ইপিবির সচিব মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী জানান, এবার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড মাথায় রেখে মেলা সাজানো হয়েছে। মেলার প্রবেশদ্বারে ভিন্নতা আনতে ৫টি মেগা প্রকল্পের কাঠামো ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি তৈরি করা হয়েছে। এরই মধ্যে মেলার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

ইফতেখার আহমেদ জানান, স্থায়ী অবকাঠামো হওয়ার কারণে এবারের মেলায় শিশুপার্ক কিংবা শিশুদের বিনোদন কেন্দ্র রাখা হয়নি। তবে বিশ্রামের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা থাকছে। ছোট ফুড কোর্ট, রেস্টুরেন্ট ও অন্যান্য খাবার দোকান থাকবে। মেলা উপলক্ষে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে বিআরটিসির ৩০টি বাস পূর্বাচলে যাতায়াত করবে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৫ সাল থেকে শেরেবাংলা নগরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। এই কারণে স্থানটি মেলা মাঠ নামেও পরিচিতি পেয়েছে। সর্বশেষ ২০২০ সালের জানুয়ারিতে শেরে বাংলানগরে ২৫তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা বসেছিল। ২০২১ সালের জানুয়ারিতে পূর্বাচলে মেলা আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু হলেও কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে তা আর মাঠে গড়ায়নি। এবার ২৬তম আসর পূর্বাচলেই বসতে যাচ্ছে।

পূর্বপশ্চিম- এনই

বাণিজ্য মেলা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close